Hoop Story

YouTube-এ ভিডিও দেখে ঘরেই সন্তান প্রসব ১৭ বছরের কিশোরীর, মেয়ে গর্ভবতী টের পাননি বাবা-মা!

বর্তমান যুগে YouTube এর বাজার একেবারে আকাশছোঁয়া। টিভি, রেডিও এখন প্রায় বাদের তালিকায়। হাতে হাতে স্মার্ট ফোন, রয়েছে ইন্টারনেট এবং অডিও ভিশ্যুয়াল মাধ্যম। কিনা দেখা যায় না এই ইউটিউব এর মধ্যে দিয়ে তার ইয়াত্তা নেই। রান্না বান্না থেকে মেডিক্যাল টিপস, ঘরোয়া টিপস, বিউটি টিপস থেকে ভ্রমণ সম্পর্কীয় তথ্য এমনকি যেকোনো সমস্যার দুর্দান্ত সমাধান। এই ইউটিউবের মাধ্যমে অনেকে নিজেদের এক্সপেরিয়েন্স ছড়িয়ে দিয়ে বিপুল অর্থও উপার্জন করছেন, তাই সব মিলিয়ে ইউ টিউবের বাজার এখন রমরমা। তবে, সম্প্রতি এক মেয়ে এই ইউ টিউবের রাস্তা ধরেই অবাক করা কাণ্ড ঘটিয়ে ফেলে।

সন্তান প্রসব করে নিজে নিজেই, তাও আবার YouTube এর ভিডিও দেখে এবং শিখে! নিজেকে চার দেওয়ালে নিজেকে বন্দী করে সন্তান প্রসব করে সেই মেয়ে। কোথায় থাকে, বয়স কত জানতে ইচ্ছা করছে তো?

ঘটনাটি কেরলে ঘটেছে এবং মেয়েটির বয়স মাত্র ১৭. গত ২০ শে অক্টোবর ওই নাবালিকা নিজে নিজে সন্তান প্রসব করেন এবং তিন দিন পর্যন্ত ঘরে বন্দী থাকেন। ভাবতে অবাক লাগছে? এরপর ওই নাবালিকার শরীরে সংক্রমণ ছড়িয়ে যায় এবং পরবর্তীতে সন্তান সহ হাঁসপাতালে ভর্তি করা হয়। আপাতত শিশু ও সন্তান দুইই সুস্থ। এখন ভাবছেন মেয়েটির বাড়িতে এতদিন কেউ জানতেও পারলো না? আসি উত্তরে।

জানা যায় মেয়েটির মা অন্ধ এবং বাবা সিকিউরিটি গার্ডের কাজ করে। প্রতিদিন সন্ধ্যে থেকে রাত পর্যন্ত বাড়ির বাইরেই কাজ করেন। দিনের বেলা মেয়ের সঙ্গে সেভাবে সাক্ষাৎ হত না। এও জানা যায় বছর ২১ এর একটি ছেলের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক জড়িয়ে যায় ওই নাবালিকা এরপরেই সন্তান আসে গর্ভে, তখন ঐ যুবক তাকে ইউটিউব দেখে সন্তান প্রসবের বুদ্ধি দেয়। বর্তমানে ব্যাপারটি ওখানকার পুলিশের হাতে রয়েছে এবং ওই যুবককে দ্বায়ী করা হয়েছে গোটা ঘটনার জন্য। পুলিশের কথা অনুযায়ী পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে মেয়েটিকে বিপদের মুখে ঠেলে দেয় ওই যুবক।

Related Articles

Back to top button