Hoop PlusTollywood

কাউকে ফোন করে কাজ চাইতে পারবনা: রচনা ব্যানার্জী

সদ্য পিতৃহারা হওয়ার পরেও দায়িত্ব ভোলেননি রচনা ব্যানার্জী (Rachana Banerjee)। আবারও ফিরেছেন ‘দিদি নং 1’-এর সঞ্চালনায়। পাশাপাশি চলছে শাড়ির ব্যবসাও। বাবার মৃত্যুর সময় রচনা ‘দিদি নং 1’-এর সঞ্চালনা থেকে ব্রেক নিয়েছিলেন। সেই সময় দায়িত্ব পালন করেছিলেন ‘রান্নাঘর’-এর রানী সুদীপা চ্যাটার্জী (Sudipa Chatterjee)। কিন্তু রচনার স্থানে তাঁকে মেনে নিতে পারছিলেন না দর্শকরা। এর আগে জুন মালিয়া (Jun Malya) বা দেবশ্রী রায় (Debashree Ray)-এর ক্ষেত্রেও ঘটেছিল একই ঘটনা। ফলে ‘দিদি নং 1’ অলঙ্কৃত করে এসেছেন রচনাই। রচনা ম্যাজিকের জন্য এই শোয়ের টিআরপি সবসময়ই উর্ধ্বমুখী।

আরো পড়ুন -   পরনে সাদা পোশাক আঙুলে নীল দাগ, প্রথমবার ভোটাধিকার প্রয়োগ করলেন রানীমা দিতিপ্রিয়া

বড় পর্দার একজন সফল অভিনেত্রী টেলিভিশনে কাজ করলেও তিনি সমান জনপ্রিয় থাকেন, এই কথা বাংলায় প্রমাণ করেছেন রচনা। বলিউডে এই ধরনের অসংখ্য উদাহরণ রয়েছে। ‘কেবিসি’-র সঞ্চালক অমিতাভ বচ্চন (Amitabh Bachchan) প্রকৃষ্ট। এছাড়াও রয়েছেন সিমি গারওয়াল (Simi Grewal), হেমা মালিনী (Hema Malini), শ্রীদেবী (Sreedevi), করিশ্মা কাপুর (Karishma Kapoor), রণবীর সিং (Ranveer Singh), সলমান খান (Salman Khan), ইরফান খান (Irfan Khan), শাহরুখ খান (Shahrukh Khan), আমির খান (Amir Khan), শিল্পা শেঠি (Shilpa Shetty)-র মতো অগুণতি তারকা যাঁরা টেলিভিশনেও সমানভাবেই আকর্ষক। রচনাও এই কথা বিশ্বাস করেন।

আরো পড়ুন -   'তোমার মতো করে আর কেউ ভালোবাসবে না', সবচেয়ে কাছের মানুষ মাকে হারালেন ঋদ্ধিমা

একটি সাক্ষাৎকারে রচনা বলেছিলেন, 2010 সালে ‘ডান্স বাংলা ডান্স’-এর বিচারক হয়ে প্রথমবার টেলিভিশনের পর্দায় তাঁর আগমন ঘটে। এরপর জি বাংলার তরফে রচনাকে টেলিভিশনে সঞ্চালনার জন্য বোঝানো হয়। সম্মত হয়েছিলেন রচনা। বলা ভালো, তিনি জীবনের সেরা সিদ্ধান্তটি নিয়েছিলেন। এরপর রচনা টিভির পর্দায় তৈরি করেছেন ইতিহাস।

কেরিয়ারের শুরুতে একাধিক হিট বাংলা ফিল্মের নায়িকা রচনা একসময় দক্ষিণ ভারতীয় ফিল্ম করেছেন। ওড়িয়া ফিল্ম ও হিন্দি ফিল্মেও অভিনয় করেছেন। এরপর তাঁর বিয়ে হয়, পুত্রসন্তানের মা হন তিনি। 2007 থেকে 2010 সাল পর্যন্ত ছেলের জন্য একটি বিরতি নিয়েছিলেন তিনি। এরপর বেশ কয়েকটি ফিল্মে অভিনয় করলেও ভালো চরিত্র পাচ্ছিলেন না রচনা। এই সময় তাঁর কাছে ‘দিদি নং 1’-এর প্রস্তাব আসে। পিআর ছাড়াই সফল হয়েছে ‘দিদি নং 1’। কিন্তু রচনা কাউকে ফোন করে কাজ চাওয়ার বিরোধী। তাঁর মতে, তাঁর পিআর ভালো নয়। কিন্তু বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির কি সত্যিই রচনার প্রতি কোনো দায়িত্ব নেই?

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Rachna Banerjee (@rachnabanerjee)

Related Articles

Back to top button