Hoop PlusTollywood

Aparajita-Anamika: ‘একবার খোঁজও নেয় না’, অনামিকা সাহার অভিযোগ নিয়ে মুখ খুললেন অপরাজিতা আঢ্য

সম্প্রতি সংবাদমাধ্যমে মুখ খুলেই বিস্ফোরক অভিযোগ করেছিলেন এককালের দুঁদে খলনায়িকা অনামিকা সাহা। তিনি সংবাদমাধ্যমে দাবি করেছিলেন যে অভিনেত্রী অপরাজিতা আঢ্যকে টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে নিয়ে তিনি এসেছিলেন। যে মানুষটা তার হাতে করে সম্পূর্ণ কেরিয়ার তৈরি করে দিল সেই অপরাজিতা আর তাঁর খোঁজটুকুও নেন না। এই বিস্ফোরক দাবিতে তিনি সরব হয়ে ওঠেন। এই নিয়ে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে বেশ জলঘোলা চলছে কয়েকদিন ধরে। কিন্তু এবার অপরাজিতা আঢ্য স্বয়ং এই বিষয়ে মুখ খুলে গোটা বিষয়টি সকলের কাছে পরিষ্কার করে দেওয়ার চেষ্টা করলেন।

কি বললেন পর্দার লক্ষ্মী কাকিমা? একটি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া প্রতিক্রিয়ায় অপরাজিতা আঢ্য জানান যে অনামিকা সাহা তার মাতৃসম। তাকে নিয়ে নতুন করে অভিনেত্রীর বলার কিছু নেই। সংবাদমাধ্যমে অনামিকা সাহা যা বলেছেন তার বিরুদ্ধে সম্পূর্ণ বিষয়টি নিয়ে অবগত তিনি। অনামিকা সাহা বলেছিলেন যে বিখ্যাত পরিচালক স্বপন সাহাকে অপরাজিতার খোঁজ তিনি দিয়েছিলেন। সেটা নাকি এখন সাফল্য পাওয়ার পর বেমালুম ভুলে গিয়েছেন অপরাজিতা।

বাংলার হিট সিনেমা শিমুল পারুল। যেদিন স্বপন সাহার সঙ্গে তিনি প্রথম দেখা করতে গিয়েছিলেন সেদিন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় স্টুডিওতে উপস্থিত ছিলেন। প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় নাকি অনামিকা সাহাকে বলেছিলেন যে, ‘তুমি আজকাল মেম নিয়ে ঘুরছ’? তবে শিমুল পারুল সিনেমা নিয়ে যে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের কোন মনের মধ্যে ক্ষোভ জমা ছিল সেই সম্পর্কে অভিনেত্রী কিছুই জানেন না।

‘শিমুল পারুল’-র শেষ শুটিংয়ের কিছুদিনের মধ্যেই বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন অভিনেত্রী অপরাজিতা আঢ্য। নতুন সংসারে পা রাখার ফলে অভিনয় তার বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। নিজের পড়াশোনা নিয়েই এগোচ্ছিলেন তিনি। ঠিক করেছিলেন আর কোনদিনও অভিনয়ে ফিরবেন না। কারণ ধীরে ধীরে তার ওজন বাড়তে শুরু করে দিয়েছিল। এবং তার ধারণা ছিল যে টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে নায়িকাদের মোটা হতে নেই। ফলে দু বছর তিনি কাজের থেকে নির্বাসন নিয়ে নেন।

তখন একটি চ্যানেলে সাউন্ড ইঞ্জিনিয়ার এর ভূমিকায় কাজ করতেন তার স্বামী। তাঁকে খাবার দিতে যেতেন। ওইটুকু নিয়েছিল স্টুডিও পাড়ায় তার যাতায়াত তখন। অনামিকা সাহার সঙ্গে ‘শিমুল পারুল’-এর পর আর একসঙ্গে কোথাও কাজ করেননি তারা। সংসারের নানা চাপে যোগাযোগের সেতু দুজনের মধ্যে হারিয়ে যেতে থাকে। অভিনেত্রী যেমন নিজে থেকে যোগাযোগের চেষ্টা করেননি তেমন অপর পক্ষ থেকেও কোনো যোগাযোগ আসেনি বলেই জানান।

এরপর তিনি টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রিতে কামব্যাক করেন। পরপর চুটিয়ে অনেকগুলি কাজ করেন তিনি। সেখানে তাকে কিউ শিমুল পারুলের প্রসঙ্গে কিছু জিজ্ঞেস করত না বলে অনামিকা সাহার কথা কোনদিন বলে ওঠা হয়নি বলে জানান অভিনেত্রী।

মুখোমুখি হলেও অনামিকা সাহাকে এড়িয়ে গিয়েছেন অপরাজিতা আঢ্য, এমনই অভিযোগ ছিল অনামিকা সাহার। পাল্টা কি বললেন অভিনেত্রী ? অপরাজিতা আঢ্য জানান যে মাঝে দীর্ঘদিন তার সঙ্গে অনামিকা সাহার কাজ করা হয়নি। কোথাও দেখতে পেয়ে অনামিকা সাহাকে চিনতে পারেন এমন ঘটনা নাকি কখনো ঘটেনি। শেষবার গত মাসে নেতাজি ইন্ডোরে একটা অনুষ্ঠানে দেখা হয়েছিল। অভিনেত্রীর সঙ্গে কথোপকথন হয়েছিল তার। পাভেলের কলকাতা চলন্তিকাতে দুজনেই অভিনয় করছেন উত্তরে অনামিকা বলেছিলেন, কিন্তু একসঙ্গে কেউ স্ক্রীন ভাগ করেননি এই বিষয়ে কথা হয়েছিল তাদের।

এরপরেও ভুল বোঝাবুঝি জায়গা কোথা থেকে হয়েছে তা অভিনেত্রী কাছে অধরা এখনও। যদিও তিনি যদি কোন ভুল করে থাকেন তাহলে অনামিকার সাহার কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন।