Hoop PlusTollywood

Arpita Chatterjee: প্রসেনজিতের স্ত্রী হলেও একদমই সুবিধাভোগী ছিলেন না অর্পিতা!

টলিউডের নামজাদা অভিনেতার স্ত্রী তিনি। নিজেও একজন অন্যতম অভিনেত্রী। সম্প্রতি ‘আবার বছর কুড়ি পর’ ছবি মুক্তি পেয়েছে। তনুশ্রী চট্টোপাধ্যায়, আবীর চট্টোপাধ্যায় ও রুদ্রনীল ঘোষদের সাথে এই ছবিতে তিনিও একজন মুখ্য চরিত্র। নিশ্চয়ই বুঝেছেন কে তিনি? টলিউডের সুপারস্টার প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের স্ত্রী অর্পিতা।

অন্যতম অভিনেতার স্ত্রী হয়ে কোন কোন বিশেষ সুবিধার অধিকারী অর্পিতা?
আমার পরিচয় আমি একজন অন্যতম প্রখ্যাত অভিনেত্রী। স্বামীর পরিচয়ও আছে। কিন্তু সেভাবে কোনো সুবিধা অসুবিধার কথা ভাবিনি। ‘গওহরজান’ হয়ে অভিনয়ের সুবর্ণ সুযোগ পেয়েছি। অভিনয়, গান, নাচ একসঙ্গে তুলে ধরেছি। সবমিলিয়ে প্রথম দিন থেকেই আমি এগিয়েছি। প্রত্যেকের পরিচয় তাঁদের কাজে। আমারও তাই।

বর্তমানে অর্পিতার ভাবনা-চিন্তা কি রয়েছে?
এই মুহূর্তে প্রযোজনার কথা ভাবছেন। অভিনয়ের ক্ষেত্রেও সূবর্ণ সুযোগের অপেক্ষায় আছি। মাতৃত্বকেও পিছনে ফেলছিনা। ছেলেকেও সমান ভাবে সময় দিচ্ছি। ‘আবার বছর কুড়ি পর’ সিনেমার গল্পটা বেশ বন্ধুত্বপূর্ন। সেখানেও কাজ করতে গিয়ে অনেক পড়াশোনা করতে হয়েছে। শাস্ত্রীয় সংগীত ও নৃত্য প্র্যাকটিস করেছেন ছোট থেকেই। সেটা নিয়ে এগোনোরও ইচ্ছে রয়েছে অর্পিতার। এমনটাই জানালেন তিনি।

সবই তো হলো, অর্পিতা ব্যক্তি মানুষটা কেমন?
বরাবরই ভীষণ প্র্যাকটিক্যাল এবং বাস্তববাদী তিনি। সবকিছুর মধ্যে ছেলেরও বেশ কাছের মানুষ। তাঁর থেকেই শোনা গেল জীবনে বিপদের সময়ে কাউকে পাশে পাননি। হতাশও হননি। সব সিদ্ধান্ত নিজেই নিয়ে নির্ভয়ে এগিয়ে গেছেন। অভিনেত্রী অর্পিতা হোক বা ‘মা’ অর্পিতা, সব একার কাঁধেই।