Bengali SerialHoop Plus

Porn Case: নিউটাউনের নীল ছবির নায়ক অভিনয় করেছেন একাধিক সিরিয়ালে

19 শে জুলাই পর্ণোগ্রাফি কান্ডে মুম্বইয়ে গ্রেফতার হয়েছেন রাজ কুন্দ্রা (Raj kundra)। কিন্তু ঝলমলে ফিল্মি দুনিয়ার আড়ালে প্রতিনিয়ত এরকম ধরনের ঘটনা ঘটে চলেছে তার প্রমাণ দিল নিউটাউনের পর্ণোগ্রাফি কান্ড। নিউটাউন পর্ণোগ্রাফি কান্ডে এখনও পর্যন্ত চারজন ব্যক্তি গ্রেফতার হয়েছেন। এঁদের মধ্যে একজনের নাম নন্দিতা দত্ত (Nandita dutta) এবং অপরজনের নাম মৈনাক ঘোষ (mainak ghosh)। দুজনেই নিজেদের কো-অর্ডিনেটর বলে পরিচয় দিতেন।

নন্দিতা বলেছেন, তাঁরা ন‍্যুড ফটোশুট বা বুদিয়ের ফটোশুট করতেন। কিন্তু তাকে পর্ণোগ্রাফির সঙ্গে গুলিয়ে ফেলা হচ্ছে। কিন্তু গত সপ্তাহে নিউটাউনের দুই তরুণী থানায় অভিযোগ করেন, মডেলিং-এর জন্য ফটোশুটের নাম করে হোটেলে নিয়ে গিয়ে তাঁদের আপত্তিকর ছবি তোলা হয়েছে। পরে সেই ছবি পর্ণ সাইটে ভাইরাল করে দেওয়া হয়েছে। এরপরেই পুলিশের টনক নড়ে। তাঁরা দমদম থেকে নন্দিতা, মৈনাক সহ মোট তিনজনকে গ্রেফতার করেন। 3 রা অগস্ট দমদম থেকেই আবারও গ্রেফতার করা হয়েছে স্নেহাশিস বল (snehashish bal) নামে এক অভিনেতাকে। কলকাতা পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, স্নেহাশিস কয়েকটি বাংলা সিরিয়ালে অভিনয় করেছিলেন। আপাতত চারজন অভিযুক্তকে দফায় দফায় জেরা করা হচ্ছে।

আরো পড়ুন -   উধাও রাণীমার সাজপোশাক, হট লুকে নেটদুনিয়ায় ঝড় তুললেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী দিতিপ্রিয়া

Porn Case: নিউটাউনের নীল ছবির নায়ক অভিনয় করেছেন একাধিক সিরিয়ালে- HoopHaap

স্নেহাশিস জানিয়েছেন, বাংলা সিরিয়ালে ছোট চরিত্রে অভিনয় করতে করতেই তাঁর সাথে নন্দিতাদের আলাপ হয়। এরপরেই পর্ণ ফিল্মে অভিনয় করতে শুরু করেন স্নেহাশিস। তাঁর প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, নিম্ন মধ্যবিত্ত ঘরের ছেলে স্নেহাশিসের জীবনযাত্রায় হঠাৎই ব্যাপক পরিবর্তন আসে। ছোট বাড়ি ছেড়ে পাশেই একটি ফ্ল্যাটে উঠে আসে স্নেহাশিসের পরিবার।

আরো পড়ুন -   'গোলন্দাজ' শ্যুটিং সেটে পায়ে গুরুতর চোট, ব্যথা ভুলে কাজে ফিরলেন অভিনেতা দেব
Porn Case: নিউটাউনের নীল ছবির নায়ক অভিনয় করেছেন একাধিক সিরিয়ালে- HoopHaap
ফটোশুটের ফর্ম

তবে নিউটাউনের এই পর্ণোগ্রাফি চক্রের শিরা-উপশিরা ছড়িয়ে রয়েছে টলিউডেও। বহু ক্ষেত্রে অ্যাডাল্ট ফিল্মের নাম করে শুট করা হয় নির্ভেজাল পর্ণোগ্রাফি। পাশাপাশি নেটদুনিয়ায় একটু লক্ষ্য করলে দেখা যাবে, অধিকাংশ মডেলিং অ্যাসাইনমেন্টের জন্য ফ্রেশ মডেল চাওয়া হয়। এই শুটগুলি সাধারণতঃ বোল্ড শুট হয়। গত চার-পাঁচ বছরে কলকাতার বুকে বুদিয়ের ফটোগ্রাফির নাম করে অথবা কখনও ক্রিয়েটিভ ফটোগ্রাফির আড়ালে রমরমিয়ে চলছে পর্ণোগ্রাফি ব্যবসা। নেটদুনিয়ায় বোল্ড ফটোশুটের নাম করে দেওয়া হয় অ্যাড। এরপর যখন কোনো মডেল সেই কাজের জন্য আবেদন করেন, তখন তাঁকে একটি বিশেষ ধরনের ফর্ম দেওয়া হয়। প্রকৃতপক্ষে এই ফর্মটি হল মডেলিং-এর আড়ালে পর্ণোগ্রাফির কন্ট্র‍্যাক্ট ফর্ম। যেসব নিউকামাররা না বুঝে এই ধরনের ফর্ম ফিল-আপ করেন এবং ফটোশুট করতে রাজি হয়ে যান, তাঁরা ওই পর্ণোগ্রাফির চক্রে ফেঁসে যান যা থেকে বেরিয়ে আসার উপায় থাকে না।

আরো পড়ুন -   জোর জল্পনা টলিপাড়ায়, মথুরবাবুর পর এবার বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন জগদম্বা!

Related Articles

Back to top button