Hoop Food

ভাতের সঙ্গে খাওয়ার জন্য চাল বাটা ঝিঙের ঘন্ট নিরামিষ রেসিপি

চাল দিয়ে অনেক সুস্বাদু রান্না করা যায়। বিশেষ করে নিরামিষের দিনে আপনি সহজেই এই রান্নাটা করে ফেলতে পারেন। গরমকালে ঝিঙের খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য ভীষণ উপকারী। বিশেষ করে যারা কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যায় ভুগছেন, তারা অবশ্যই ঝিঙে খান। চলুন এই অসাধারণ রেসিপি রান্না করে নেওয়া যাক। বাড়িতে অতিথি আসুক কিংবা নিজেদের মুখের স্বাদ বদলাতে অবশ্যই নিরামিষের দিনে চেষ্টা করুন এটি।

উপকরণ –
১ কাপ আতপ চাল
দুটি বড় আকারের ঝিঙে
গোটা জিরে,শুকনো লঙ্কা,তেজপাতা
২ কাপ দুধ
বেশ কয়েকটা বড়ি
জিরে গুঁড়ো ১ চা চামচ
ধনে গুঁড়ো ১ চা চামচ
হলুদ গুঁড়ো ১ চা চামচ
লঙ্কাগুঁড়ো স্বাদমতো
আদা বাটা ১ টেবিল চামচ
টমেটো বাটা ২ টেবিল চামচ
গরম মশলা গুঁড়ো ১ চা চামচ
ঘি ২ টেবিল চামচ
সরষের তেল ১ কাপ
নুন মিষ্টি স্বাদমতো

প্রণালী –
আতপ চাল বেটে দু’ঘণ্টার জন্য দুধের মধ্যে ভিজিয়ে রাখতে হবে। তারপরে এটি বেটে নিতে হবে। এরপর কড়াইতে সরষের তেল গরম করে বড়ি ভেজে তুলতে হবে।তাতে গোটা জিরে, শুকনো লঙ্কা, তেজপাতার ফোড়ন দিয়ে তারপরে ঝিঙেগুলো ডুমো করে কেটে ভালো করে ভেজে নিতে হবে। এরপর এর মধ্যে সমস্ত বাটা মশলা এবং গুঁড়ো মশলা দিয়ে দিতে হবে। নুন, মিষ্টি স্বাদ মত দিয়ে উষ্ণ গরম জল দিয়ে কিছুক্ষণের জন্য ঢাকা দিয়ে রাখতে হবে। নুন মিষ্টি স্বাদ মত দিতে হবে। ১০ মিনিট পর ঢাকনা খুলে এর মধ্যে দুধের সঙ্গে বেটে রাখা আতপ চাল দিয়ে ভালো করে কষাতে হবে। বড়ি দিতে হবে। কষানো হয়ে গেলে ওপরে এবং গরম মসলার গুঁড়া ছড়িয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন চাল বাটা দিয়ে ঝিঙের ঘন্ট।

ভাতের সঙ্গে খাওয়ার জন্য চাল বাটা ঝিঙের ঘন্ট নিরামিষ রেসিপি- HoopHaap

Related Articles

Back to top button