Hoop Life

Skin Care Tips: গরমে কেটে যাওয়া দুধ ফেলে না দিয়ে যেভাবে রূপচর্চায় ব্যবহার করবেন

ত্বককে দুধের মতন ফর্সা করতে আমরা অনেকেই কাঁচা দুধ বা গরম দুধ ব্যবহার করে থাকি কিন্তু এই গরমে প্রায়শই দেখতে পাবেন যে দুধ জ্বাল দিতে গিয়ে অনেক সময় দুধ কেটে যায়। এজন্য ফেলে দিই। কিন্তু আপনি কি জানেন এই দুধ কত কাজে লাগে আপাতত রূপচর্চায় কিভাবে কেটে যাওয়া দুধ নষ্ট হয়ে যাওয়া দুধকে ব্যবহার করবেন তা জেনে নিন।

১) নষ্ট হয়েছে আমার দুধ অনেকটা টক দইয়ের মতন করে আপনি ব্যবহার করতে পারেন। এই নষ্ট হয়ে যাওয়া দুধ আপনার ত্বকে যেখানে কালো কালো দাগ হয়েছে। সেখানে দাগ সহজে তুলে ফেলতে সাহায্য করবে। অনেক সময় ঠোঁটের কালো দাগ হয়ে যায়। সে ক্ষেত্রে এই দুধ এক চামচ নিয়ে তার মধ্যে এক চামচ চিনি নিয়ে যদি ভালো করে ঠোঁটে ঘসে ঘসে লাগাতে পারেন, তাহলে দেখবেন কিছুক্ষণ পরে ঠোঁট কত সুন্দর গোলাপি এবং নরম হয়ে গেছে।

২) নষ্ট হয়ে যাওয়া এই দুধ যদি ঘাড়ে, গলায়, পিঠে ভালো করে ম্যাসাজ করতে পারেন এবং তার সঙ্গে মিশিয়ে নিতে পারেন, সামান্য বেসন। তাহলে দেখবেন কিছুক্ষণ ম্যাসাজ করে রাখার পরে ত্বক একেবারে সুন্দর, নরম মাখনের মতো তুলতুলে হয়ে গেছে।

৩) নষ্ট হয়ে যাওয়া দুধের সঙ্গে সামান্য চালের গুঁড়ো মিশিয়ে ভালো করে স্ক্রাব করুন। এই স্ক্রাবার আপনার ত্বককে অনেক বেশি উজ্জ্বল করবে। বিশেষ করে পায়ের গোড়ালি পায়ের পাতা এগুলো যদি ভালো করে ঘষতে পারেন, তাহলে দেখবেন মরা কোষ সহজে উঠে যাচ্ছে।