Hoop Life

Skin Care Tips: আলু, শসা, টমেটো দিয়ে বাড়িতে বানিয়ে মেখে ফেলুন তিনটি অসাধারণ ফেসপ্যাক

ত্বক ফর্সা করার জন্য আমরা কত কিছুই না করে থাকি। কিন্তু আমরা জানি না বাড়িতে থাকা কয়েকটি ছোটখাট জিনিস দিয়েই কিন্তু আপনি আপনার গায়ের রং কে একেবারে পরিষ্কার করে ফেলতে পারবেন। তবে যারা কালো তাদের পক্ষে একেবারে দুধের মতন ফর্সা রং হওয়া সম্ভব নয়। কারণ ঈশ্বর দত্তর অংকে কখনই একেবারে পরিবর্তন করা সম্ভব হয় না। কিন্তু যদি একটু নিজের পরিচর্যা করেন তাহলে কিন্তু আপনি জন্মের সময় যে রং নিয়ে জন্মেছিলেন, সেই রং আপনি ফিরে পেতে পারেন। তার জন্য আপনাকে খুব বেশি টাকা খরচ করতে হবে না। আলু, শসা এবং টমেটোর তিনটি অসাধারণ ফেসপ্যাক এই আপনি আপনার হারানো উজ্জ্বল ফিরে পাবেন।

১) আলুর ফেসপ্যাক- ২ টেবিল-চামচ আলু বাটা, ৩ টেবিল চামচ লেবুর রস খুব ভাল করে মিশিয়ে নিয়ে মুখ ভালো করে জল দিয়ে পরিষ্কার করে এই ভিজে মুখের ওপরে ফেসপ্যাকটি লাগিয়ে রাখতে হবে। অন্তত আধঘন্টার জন্য মাঝে যদি শুকিয়ে যায় একটু একটু করে জল দিয়ে হাত দিয়ে সামান্য ঘষে তারপরে আবার রেখে দিন। এইভাবে ত্রিশ মিনিট পরে ঠান্ডা জল দিয়ে ভালো করে ধুয়ে নিন, দেখবেন একবার ব্যবহারে ত্বক পরিষ্কার হয়ে গেছে। আলুর মধ্যে থাকা ব্লিচিং উপাদান ত্বক পরিষ্কার করতে সাহায্য করে চোখের চারপাশে এটি দিতে পারেন।

২) শসার ফেসপ্যাক – ৩ টেবিল চামচ শসা বাটা, ১ টেবিল চামচ লেবুর রস এবং এক টেবিল চামচ মধু ভালো করে মিশিয়ে নিয়ে রাতে ঘুমোতে যাওয়ার সময় মতো ভালো করে পরিষ্কার করে নিয়ে জল থাকা অবস্থাতেই মুখে এই ফেসপ্যাকটি লাগিয়ে রাখুন। মাঝেমধ্যে একটু করে ম্যাসাজ করে নেবেন। যদি খুব শুকিয়ে যায়, সামান্য হাতে নারকেল তেল নিয়ে নিন, যাদের তৈলাক্ত ত্বক তারা নারকেল তেলের বদলে কাঁচা দুধ দিতে পারেন। এইভাবে ভালো করে আধঘন্টা ধরে ম্যাসাজ করুন। যদি মনে করেন এই ভাবেই শুয়ে পড়তে পারেন, না হলে ভাল করে জল দিয়ে ধুয়ে শুয়ে পড়ুন পরের দিন সকালবেলা উঠে দেখবেন ত্বক কত সুন্দর এবং পরিষ্কার হয়ে গেছে।

৩) টমেটোর ফেসপ্যাক- ২ টেবিল-চামচ টমেটো বাটা, ১ টেবিল চামচ চিনি, ২ টেবিল চামচ লেবুর রস ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। এরপর এই মিশ্রণটি ভিজে মুখ, পিঠ, হাত, ঘাড়, গলা বিভিন্ন জায়গায় যেখানে মনে হচ্ছে ত্বক বেশি কালো হয়ে গেছে। সেখানে এই মিশ্রণটি ঘষে ঘষে লাগিয়ে নিতে পারেন। কিছুক্ষণ পরে ঠাণ্ডা জলে ধুয়ে ফেললেই আপনি দেখতে পারবেন তত সুন্দর হয়ে গেছে এই ফেসপ্যাকটি দুপুরে ঘুমানোর সময় লাগিয়ে রাখতে পারবেন।

সতর্কতাঃ উপরের তিনটি ফেসপ্যাক এর মধ্যে যদি কোন টি লাগাতে গিয়ে মনে হয় সামান্য চুলকুনি হচ্ছে বা র‍্যাশ বেরোচ্ছে, তাহলে কিন্তু সাথে সাথেই ফেসপ্যাকটি ধুয়ে ফেলবেন। অনেক সময় আলুর রস কিংবা টমেটো বা লেবুর রসে অনেকেরই অনেক সমস্যা দেখা দিতে পারে। সবচেয়ে ভালো হয় লাগানোর আগে কানের পেছনে খানিকটা দিয়ে যদি একটু প্যাচ টেস্ট করে নিতে পারেন। তখনই যদি কোন সমস্যা হয়, তাহলে সেই ফেসপ্যাকটি আপনার ত্বকের জন্য নয় সেক্ষেত্রে অন্যটি ব্যবহার করুন।