বউয়ের গাল ধরে অভিনব স্টাইলে সিঁদুর পরালেন অভিনেতা ইন্দ্রনীল, ছবি শেয়ার করলেন সায়ন্তনী

চলতি মাসেই বিয়ে করেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় মুখ সায়ন্তনী-ইন্দ্রনীল। এক্কেবারে অন্যরকম সাজে বিয়ের পিঁড়িতে হাজির হন সায়ন্তনী। খোলা চুল, পরনে হেভি শাড়ি, শরীরে সোনার অলঙ্কার, নাকে টানা নথ, ঠিক এরই মাঝে সিথির ফাঁকে চওড়া করে সিঁদুর দিয়ে দেন ইন্দ্রনীল। সেই বিয়ের ছবি আবার পোস্ট করেছেন অভিনেত্রী। এক গাল মিষ্টি হাসি, চোখ বন্ধ, আর ইন্দ্রনীল বেজায় খুশি মুড বউএর গাল ধরে সিঁদুর ট্রেনে দিচ্ছেন সিঁথিতে।

এমন ভাবে সিঁদুর কাউকে টানতে দেখেছেন! এ যেন দেখে মনে হচ্ছে বউকে জোর করে বিয়ে করা। ব্যাপারটা মজার হলেও বেশ সিরিয়াস। আসলে সিঁদুর পড়ার সময় মেয়েরা লজ্জা লজ্জা মুখে নিচের দিকে তাকিয়ে থাকে। কিন্তু অভিনেত্রী মুখে একগাল হাসি, আর পাত্র ইন্দ্রনীলের মুখেও বেজায় তৃপ্তি। এদিন সায়ন্তনী তাদের বিয়ের ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, “এই ভাবে কেউ সিঁদুর পরায়” ট্যাগ করেছেন নতুন বর ইন্দ্রনীলকে।

সায়ন্তনী-ইন্দ্রনীলের বিয়েতে এসেছিলেন বেশকিছু পরিচিত মুখ, এই যেমন শ্রুতি দাস এবং স্বর্ণেন্দু সমাদ্দার, বিদিপ্তা চক্রবর্তী, গীত রায়, চান্দ্রেয়ী প্রমুখ।

প্রসঙ্গত,  এর আগেও ২০১৬ তে অভিনেত্রী প্রেরণা ভট্টাচার্যের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন ইন্দ্রনীল। সেই বিয়ে থেকে বিচ্ছেদ হওয়ার পর সায়ন্তনীর সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান ইন্দ্রনীল। উল্লেখ্য, সায়ন্তনী যেমন পজিটিভ রোল প্লে করতে সমক্ষ তেমনই নেগেটিভ চরিত্রেও তাকে দেখা যায়। ‘ক্ষীরের পুতুল’ ধারাবাহিকে নেগেটিভ চরিত্রে দেখা গিয়েছিল সায়ন্তনীকে। ১০ বছরের ক্যারিয়ারে যেমন পজিটিভ রোল পেয়েছেন তেমনই নেগেটিভ চরিত্রেও নিজেকে উজাড় করে দিয়েছেন। ‘জয়ী’ হোক বা ‘বধূবরণ’ কিংবা ‘মিলন তিথি’ র মতন জমজমাট ধারাবাহিকে দেখা গিয়েছে সায়ন্তনী সেনগুপ্তকে।