বিয়ের মরশুমে সোনার দামে ভারী পতন, স্বস্তির নিঃশ্বাস সাধারণ মানুষের

সামনে ছিল দুর্গাপুজো,লক্ষীপুজো,কালিপুজো। সামনেই এই উৎসব। করোনা মরশুম থাকলেও পঞ্জিকা বলছে এখন অগ্রহায়ণ। সামনেই বাঙালি ছেলে মেয়ের বিয়ে শুরু হবে। উৎসব শেষ হলেও বাঙালির আনন্দ একটু ও কমেনি। সম্প্রতি ধনতেরাসে বহু মানুষ সাধ্যমতো সোনা রুপোর দোকানে ভিড় জমায়। কিন্তু অনেক মধ্যবিত্তের ইচ্ছে থাকলেও সাধ্য ছিলনা। এই ধনতেরাসে ও অন্য ধনতেরাসের মতো হুরুহুর করে পড়তে দেখা গেল সোনার দাম। কেবল সোনার দাম কমেনি কমেছে রুপোর দামও। আর তাতেই বাঙালিরা সোনার দোকানে ছুটছে।

সম্প্রতি ভারতীয় বাজারে সোনা ও রুপোর দামে বিশাল পরিবর্তন দেখা গিয়েছে৷ বিশ্বের করোনার জন্য এবং লকডাউনের জেরে সোনা ও রুপোর দাম গত কয়েক মাসে অত্যাধিক বেড়ে গিয়েছিল৷ সম্প্রতি করোনার ওষুধ খুব শীঘ্রই বাজারে আসার সম্ভাবনা রয়েছে এই খবর আসতেই সোনা ও রুপোর দাম কমেই চলেছে৷ গত ২ দিনে সোনার দাম ১২০০ টাকা কমেছে ৷ এমসিএক্স অনুযায়ী এদিন সোনার Future Price ০.৯ শতাংশ কমে প্রতি ১০ গ্রামে ৪৯,০৫১ টাকা হয়েছে৷ অন্যদিকে রুপোর দাম ৫৫০ টাকা অর্থাৎ ০.৯ শতাংশ কমে ৫৯,৯৮০ টাকা প্রতি কিলোগ্রামে হয়ে গিয়েছে৷ সোনার দাম ১০ গ্রাম প্রতি ৭৫০ টাকা বা ১.৫ শতাংশ হ্রাস পেয়েছিল এবং আগের দিনের থেকে রুপো কমে প্রতি কেজি প্রতি ১৬২৮ বা ২.৬ শতাংশ ছিল।

আগস্টে সোনার দাম রেকর্ড সর্বোচ্চ Rs ৫৬,২০০ টাকা দেখা গিয়েছিল, অ্যান্টি-করোনভাইরাস রোগ ভ্যাকসিনগুলির প্রস্তুতিতে এবং সোনার সমর্থিত এক্সচেঞ্জ-ট্রেড তহবিলের সাম্প্রতিক প্রবাহের মধ্যে স্পট গোল্ড ০.৬ শতাংশ কমে ১৮২৬.৪৭ ডলার প্রতি আউন্স হয়ে গিয়েছে ৷ রুপোর দাম কমেছে ১.১ শতাংশ ৷ অবশ্য প্ল্যাটিনামের দাম ০.৫ শতাংশ বেড়েছে ৷ বিশেষজ্ঞদের মতে আগামী দিনে সোনার দামে কম থাকবে ৷ নতুন বছরে সোনার দাম এখনকার থেকে প্রায় ৫০০০ টাকা প্রতি ১০ গ্রামে সস্তা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে ৷