বাবা কোনদিন দায়িত্ব নেয়নি মা আমাকে মানুষ করেছে, বিস্ফোরক কুমার শানুর পুত্র!

৯০ এর দশকের সেরা গায়ক বললেও হয়তো ভুল হবে, সেরার সেরা গায়ক হলেন কুমার শানু। সম্প্রতি তাঁর প্রথম স্ত্রীর ছেলে জান কুমার সানু গিয়েছিলেন বিগ বস ১০ এর ঘরে। যাত্রা বেশিদিনের নয়, খুব অল্প দিনের মধ্যে বিগ বস ১০ এর ঘর থেকে বেড়িয়ে গেলেন তিনি। ঠিক কি কারণে বেড়িয়ে গেলেন তিনি? খেলার কিছু নিয়ম আছে, তাই নিয়মের কারনেই বেড়িয়ে গেছেন কিন্তু আসল কারণ কী ছিল?

বিগ বসের ঘরে প্রবেশ করার পর আরেক প্রতিযোগিনী নিকি তাম্বোলির সঙ্গে বিতর্কে জড়িয়ে ফেলেন জান কুমার সানু নিজেকে। তাঁর সঙ্গে যেন মারাঠি ভাষায় কথা না বলা হয় বলে নিকিকে জানান তিনি। এরপরই জানের বিরুদ্ধে রেগে ফুঁসে ওঠে শিবসেনা। ভাষা নিয়ে অপমান সহ্য করবেন না বলে সাফ জানিয়ে দেয় শিবসেনা। এমনকি জান যদি ক্ষমা না চায় তবে বিগ বসের শ্যুটিং বন্ধ করে দেওয়া হবে বলে হুমকি দেয় শিবসেনা। ঠিক এরপরেই মুখ খোলেন স্বয়ং কুমার সানু। জানকে তাঁর মা কী শিক্ষা দিয়েছেন বলে প্রশ্ন তোলেন তিনি। এমনকী, জান তাঁর ছেলে তাই ছেলের হয়ে তিনি ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছেন বলেও মন্তব্য করতে শোনা যায় জনপ্রিয় গায়ককে।

কুমার শানুর গান বলতে আমরা অজ্ঞান, ৯০ দশকের সেসব গান শুনলে আজও মনে প্রেম উঁকি দেয়। সেই মানুষের জীবনের প্রেম, বিয়ে সবই কি ফিকে? আটের দশকে রিতা ভট্টাচার্যের সঙ্গে বিয়ে হয় কুমার শানুর। তাঁদেরই পুত্র হলেন এই জান। বহুবছর একসঙ্গে সংসার করেন কুমার শানু রিতার সঙ্গে। এরপরেই গুঞ্জন আসে যে কুমার শানু অভিনেত্রী মিনাক্ষী শেষাদ্রির রূপে মুগ্ধ হয়ে প্রেমে পাগল হয়ে গিয়েছেন। রিতা-কুমারের সম্পর্ক সেসময় তলানিতে গিয়ে থেকে। বিবাহ বিচ্ছেদ পর্যন্ত জল গড়ায়। যদিও কুমার শানুর সঙ্গে মীনাক্ষী শেষাদ্রির বিয়ে হয়নি। গুঞ্জন প্রায় ৩ বছরের সম্পর্কে ছিলেন তাঁরা। বর্তমানে মীনাক্ষী আমেরিকায় বসবাস করেন তাঁর স্বামী সন্তানের সঙ্গে। সেসময় কুমার শানু আবার বিবাহ করেন সালোনি ভট্টাচার্যের সঙ্গে। বর্তমানে সালোনি ভট্টাচার্য এবং কুমার শানুর ২ সন্তান রয়েছে এবং তাঁরা লন্ডনে থাকেন।

প্রথম ছেলের সঙ্গে যোগাযোগ নেই কুমার শানুর প্রায় ২০ বছরের বেশি। বিগ বস ১০ এর ঘর থেকে বেড়িয়ে এই জান কুমার সানু জানান যে তাঁর বাবা তাঁর জীবনের কোন দ্বায়িত্ব নেননি। এমনকী, তাঁদের সঙ্গে কখনো যোগাযোগ পর্যন্ত রাখেননি। জান এও জানান যে তাঁর বাবা জন্মের পর থেকে সব সময় দূরেই থেকেছেন। আমজনতার সামনে বহুদিনের জমানো ক্ষোভ উগড়ে দিলেন জান। জানের এমন উক্তিতে শোরগোল কুমার শানুর অনুরাগীদের মনে।