Hoop PlusBollywoodReality show

আজও মঞ্চে গাইতে উঠে আশাজির হাত-পা ঠান্ডা হয়ে যায়: কুমার শানু

জীবন্ত কিংবদন্তী আশা ভোঁসলে (Asha Bhonsle)-কে নিয়ে রয়েছে একাধিক কাহিনী। আশার বিকল্প ইন্ডাস্ট্রিতে এখনও তৈরি হয়নি। দিদি লতা মঙ্গেশকর (Lata Mangeshkar)-এর ছায়া থেকে বেরিয়ে নিজের স্বতন্ত্র অস্তিত্ব তৈরি করেছেন আশা। কিন্তু এখনও নাকি মঞ্চে গাইতে উঠলে তাঁর হাত-পা ঠান্ডা হয়ে যায়। অন্তত এমনটাই বললেন কুমার শানু (Kumar Sanu)।

শুরু হয়ে গিয়েছে সিঙ্গিং রিয়েলিটি শো ‘সুপার সিঙ্গার’। বিচারকের আসনে রয়েছেন কুমার শানু, কৌশিকী চক্রবর্তী (Koushiki Chakraborty) এবং সোনু নিগম (Sonu Nigam)। ‘সুপার সিঙ্গার’ সঞ্চালনা করছেন যীশু সেনগুপ্ত (Jissu U Sengupta)। ‘সুপার সিঙ্গার’-এর মঞ্চে আশাকে নিয়ে এই ঘটনা শেয়ার করেছেন কুমার শানু। পাঁচ-ছয় বছর আগে, একটি অনুষ্ঠানে শানু ও আশার স্টেজ পারফরম্যান্স করার কথা ছিল। আশা মঞ্চে ওঠার আগে শানু তাঁকে অভিবাদন জানাতে হাত বাড়িয়েছিলেন। সেই সময় আশার হাত ধরে শানু দেখেন, হাত বরফের মতো ঠান্ডা।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Kumar Sanu (@kumarsanuofficial)

শানু জিজ্ঞাসা করেন, আশার হাত এত ঠান্ডা কেন! আশা বলেন, মঞ্চে ওঠার আগে ভয় করে। শানু অবাক হয়ে গিয়েছিলেন। তখন আশা বলেছিলেন, যতদিন ভয় করবে, যতদিন হাত ঠান্ডা থাকবে, ততদিন তিনি সঙ্গীতশিল্পী থাকবেন। যেদিন থেকে হাত-পা ঠান্ডা থাকবে না, ভয় করবে না, সেদিন থেকে তিনি আর সঙ্গীতশিল্পী থাকবেন না। এই ঘটনার কথা বলেই শানু বলেন, ভয় পাওয়া জরুরী। তাঁর কথায় দর্শকদের করতালিতে ভরে গিয়েছিল মঞ্চ।

আরো পড়ুন -   Sushmita-Rohman: ১৫ বছরের ছোট রোহমানের সঙ্গে মাখোমাখো প্রেমে ইতি টানলেন সুস্মিতা

মেয়ের মৃত্যুর পর একপ্রকার অনুষ্ঠান করা ছেড়েই দিয়েছিলেন আশা। চলে গিয়েছিলেন অন্তরালে। কিন্তু তাঁর ভাই হৃদয়নাথ মঙ্গেশকর (Hridaynath Mangeshkar) তাঁকে আবারও ফিরিয়ে নিয়ে আসেন। আজও আশার গানই আশার জীয়নকাঠি।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Asha Bhosle (@asha.bhosle)

Related Articles

Back to top button