Hoop PlusTollywood

Lokesh Ghosh: নেপোটিজম বিতর্কে প্রসেনজিৎ সম্পর্কে মুখ খুললেন লোকেশ ঘোষ!

ইদানিং বিনোদন জগত বারবার নেপোটিজমের দোষে দুষ্ট হচ্ছে। গত বছর সুশান্ত সিং রাজপুত (Sushant Singh Rajput)-এর মৃত্যুর পর থেকে এই বিতর্ক আরও জোরালো হয়েছে। এবার প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জী (Prosenjit Chatterjee)-র স্বজনপোষণ নিয়ে মুখ খুললেন টলিউডের অভিনেতা লোকেশ ঘোষ (Lokesh Ghosh)।

1995 সালে অঞ্জন চৌধুরী (Anjan Chowdhury)-র হাত ধরে বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে লোকেশের প্রবেশ ঘটে। তাঁর পরিচালিত একাধিক ফিল্মে লোকেশ অভিনয় করেছেন। 2009 সাল পর্যন্ত তাঁকে ফিল্মে অভিনয় করতে দেখা গেলেও এরপর তাঁর কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি। লোকেশ একরকম উধাও হয়ে যান ইন্ডাস্ট্রি থেকে। শোনা যাচ্ছে, বর্তমানে তিনি একটি প্রযোজনা সংস্থা খুলেছেন। তবে প্রযোজক হিসাবে লোকেশ নামী নন। অঞ্জন চৌধুরী পরিচালিত ‘নাচ নাগিনী নাচ’ ফিল্মে নায়কের চরিত্রে অভিনয় করলেও বেশ কয়েকটি ফিল্মে তিনি সেকেন্ড লিডে অভিনয় করেছেন। এমনকি অভিনয় করেছেন প্রসেনজিৎ-এর সাথেও। ‘দাদার আদেশ’ ফিল্মে প্রসেনজিৎ-এর পাশাপাশি নজর কেড়েছিলেন লোকেশ। কিন্তু কেরিয়ারের মধ্য গগনে এসে হঠাৎই কেন উধাও হয়ে গেলেন লোকেশ? উত্তর দিলেন তিনি নিজেই।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Lokesh Ghosh (@lokeshghosh24)

লোকেশের কেরিয়ার গ্রাফ যখন ধীরে ধীরে উর্ধ্বমুখী, তখন প্রসেনজিৎ হয়ে উঠেছিলেন টলিউডের অন্যতম প্রধান অভিনেতা। পরবর্তীকালে তিনি হয়ে উঠেছেন ইন্ডাস্ট্রির মূল স্তম্ভ। নব্য পরিচালকদের পরীক্ষা-নিরীক্ষার ক্ষেত্রেও তিনিই প্রথম পছন্দ। তবে এই মুহূর্তে বদলেছে চিত্রনাট্যের ধরন, দর্শকদের পছন্দ। একসময় যা ছিল আর্ট ফিল্ম, তা বর্তমানে বাণিজ্যিক ফিল্ম হিসাবেই পরিচিত। একসময় প্রসেনজিৎ ও ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত (Rituparna Sengupta)-র জুটির সাফল্য বর্তমানেও প্রমাণ করেছে ‘প্রাক্তন’। কিন্তু টলিউডের অভিনেতা-অভিনেত্রীদের একাংশ প্রসেনজিৎ-এর দিকে স্বজনপোষণের আঙুল তুলেছিলেন।

শ্রীলেখা মিত্র (Sreelekha Mitra), অভিষেক চট্টোপাধ্যায় (Abhishek Chatterjee)-দের মতে, প্রসেনজিৎ-এর সঙ্গে ঋতুপর্ণার সম্পর্কের কারণে তাঁরা অন্য নায়ক-নায়িকাদের সঙ্গে কাজ করতেন না। যা একধরনের স্বজনপোষণের নামান্তর। কিন্তু এবার মুখ খুললেন লোকেশ। তিনি জানিয়েছেন, কোনোদিন প্রসেনজিৎ-কে তিনি এমন কিছুই করতে দেখেননি। লোকেশের মতে, প্রসেনজিৎ স্বজনপোষণ করেননি। তবে লোকেশ বলেছেন, তিনি যদি প্রসেনজিৎ-এর স্থানে থাকতেন, তাহলে চুক্তি করে অভিনেতা-অভিনেত্রী বাছতেন। কিন্তু প্রসেনজিৎ কোনোদিন এমন কিছুই করেননি।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Prosenjit Chatterjee (@prosenstar)