Hoop PlusTollywood

Mimi Chakraborty: শেষ অবধি ‘পলাশের বিয়ে’ মিমি চক্রবর্তীর সঙ্গে! নেপথ্যে প্রেমেন্দু চাকী

মিমি চক্রবর্তী (Mimi Chakraborty)-র বিয়ে নিয়ে জল্পনার অন্ত নেই। তাঁর সমসাময়িক বহু তারকার বিয়ে হয়ে গেলেও মিমি এখনও সিঙ্গল। তবে এই মুহূর্তে তাঁর জীবনে প্রবেশ করেছেন নতুন নায়ক সোমরাজ মাইতি (Shomraj Maiti)।

‘এই ছেলেটা ভেলভেলেটা’, ‘টেক্কা রাজা বাদশা’-র মতো একাধিক সিরিয়ালে অভিনয় করেছেন সোমরাজ। প্রেমেন্দু বিকাশ চাকী (Premendu Bikash Chaki) পরিচালিত ফিল্ম ‘পলাশের বিয়ে’-তে টলিউড পেতে চলেছে নতুন জুটি সোমরাজ ও মিমিকে। প্রেমেন্দু জানিয়েছেন, এটি একটি পারিবারিক গল্প। হাসি-আনন্দে মোড়া আধুনিক সময়ের গল্প ‘পলাশের বিয়ে’। তার পাশাপাশি বর্তমান যুগের একটি সমস্যার কথাও উঠে আসতে চলেছে ফিল্মে। তবে কোনও ব্যক্তিকে ভিলেন হিসাবে তুলে ধরতে চান না প্রেমেন্দু। তিনি মনে করেন, প্রত্যেকের নিজস্ব চিন্তাধারা রয়েছে। সবকিছু সামলে জীবনের মূল কাহিনীকে তুলে ধরতে চান প্রেমেন্দু। ‘পলাশের বিয়ে’-র চিত্রনাট্য লিখছেন পদ্মনাভ দাশগুপ্ত (Padmanabha Dasgupta)।

প্রেমেন্দু মনে করেন, পারিবারিক ফিল্মের ক্ষেত্রে মূল নায়ক-নায়িকার ভালো অভিনেতা-অভিনেত্রী হওয়া জরুরী। মিমির সাথে প্রেমেন্দুর অনেকদিন ধরেই কাজ করার ইচ্ছা ছিল। তাঁর অভিনীত ‘ড্রাকুলা স্যার’ দেখার পর প্রেমেন্দু মিমিকেই ‘পলাশের বিয়ে’-র নায়িকা মনস্থ করেন। এমনিতেও মিমি গত কয়েক বছর ধরে বাছাই করে ফিল্মে অভিনয় করছেন। ইতিমধ্যেই মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে মিমি অভিনীত দুটি নারীকেন্দ্রিক ফিল্ম ‘মিনি’ ও ‘খেলা যখন’। অপরদিকে কিছুদিন আগেই সোমরাজ শেষ করেছেন ‘জয় কালী কলকাত্তাওয়ালী’ ও ‘আম্রপালী’-র শুটিং।

এছাড়াও মিমির রাজনৈতিক যোগদান যথেষ্ট। সাংসদ হওয়ার কারণে তাঁকে পার্লামেন্টে যেতে হয়। ফলে কেরিয়ার ও রাজনীতি বজায় রাখতে সচেষ্ট মিমি।