Hoop PlusBengali Serial

বাংলা ধারাবাহিকে চলবে না হিন্দি গান ও উত্তর ভারতের সংস্কৃতি! সোচ্চার বাংলা পক্ষ

বাংলার দর্শকদের কাছে বাংলা ধারাবাহিক হল রোজকার ডাল ভাত বা মাছ ভাত। দুপুরের আহারের পর বিকেল থেকে রাত পর্যন্ত চলে চোখের খিদে। যার যেই ধারাবাহিক পছন্দ সেই ধারাবাহিক নিয়েই বসে পড়েন টিভির সামনে। একটা সময় টেলিভিশনে নিয়মিত কোনো ধারাবাহিক হতো না। শনি রবিবার করে কিছু স্পেশ্যাল অনুষ্ঠান ছাড়া প্রতিদিন একেকটা স্লটে একেকরকম ধারাবাহিক থাকতো না। এখন সময় বদলেছে। রিয়্যালিটি শো থেকে শুরু করে ধারাবাহিক, একটার পর একটা চলতে থাকে রাত পর্যন্ত। কিন্তু, এই ধারাবাহিক নিয়ে এবার প্রতিবাদ জানালেন বাংলা পক্ষ (Bangla Pokkho)।

এই বাংলা পক্ষের প্রশ্ন, কেন বাংলা ধারাবাহিকে হিন্দি গান ব্যকগ্রাউন্ড বাজানো হবে? বাংলা ধারাবাহিকে বাংলা গান কেনো বাজানো হয় না? তারা এই নিয়েও সোচ্চার হয়েছেন যে বাংলা ধারাবাহিকে বিয়ের অনুষ্ঠানে পাত্রীকে বাঙ্গালী বধূর সাজে না সাজিয়ে লেহেঙ্গা দিয়ে সাজানো হচ্ছে। এমনকি করভা চৌথ, মেহেন্দি, সঙ্গীত এর মতন অনুষ্ঠান দেখানো হচ্ছে বিয়েতে।

বাংলা ধারাবাহিকে চলবে না হিন্দি গান ও উত্তর ভারতের সংস্কৃতি! সোচ্চার বাংলা পক্ষ- HoopHaap

বাংলা পক্ষের দাবী, উত্তর ভারতীয় সংস্কৃতি চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে বাঙালিদের মধ্যে। এদিন শীর্ষ পরিষদ সদস্য কৌশিক মাইতি বলেন, ‘বাংলার সংস্কৃতিকে নষ্ট করার ঘৃণ্য চক্রান্তের বিরুদ্ধেই বাংলা পক্ষর এই প্রতিবাদ। জোর করে বাংলা সিরিয়ালগুলিতে উত্তর ভারতের সংস্কৃতি নিয়ে আসা হচ্ছে। করবাচৌথের মতো অনুষ্ঠানে দেখানো হচ্ছে। বিয়েবাড়ির অনুষ্ঠানগুলিতে কনেকে বেনারসীর বদলে লেহেঙ্গা পরানো হচ্ছে। আগে সিরিয়ালগুলিতে বাংলা গান বাজানো হত। এখন ব্যাকগ্রাউন্ডে সারাক্ষণ চলছে হিন্দি গান। এ জিনিস চলতে পারে না।’

বাংলা ধারাবাহিকের অধিকাংশ শ্যুটিং চলে DRR স্টুডিয়োতে। উক্ত স্টুডিওর সামনে আগামী রবিবার সকাল ১১টা নাগাদ বিক্ষোভ করবেন এই বাংলা পক্ষ। বাংলা ধারাবাহিকে যাতে বাংলার চিন্তা ভাবনা, সামাজিক প্রেক্ষাপট এবং এখনকার সংস্কৃতি বজিয়ে থাকে সেই ব্যাপারেই সচেতনতা বাড়াতে চান উত্তর চব্বিশ পরগনা শহরাঞ্চল বাংলা পক্ষ।

Related Articles

Back to top button