Hoop PlusBollywood

Poonam Pandey: শারীরিক নির্যাতন মারধরের অভিযোগে ফের স্বামীকে জেলে পাঠালেন পুনম পান্ডে

খবরের শিরোনামে আবারও বহুলচর্চিত পুনম পান্ডে (Poonam Pandey)। একসময় রাজ কুন্দ্রা (Raj kundra)-র প্রভাবে অ্যাডাল্ট অভিনেত্রী হতে বাধ্য হয়েছিলেন তিনি। এবার স্বামীর বিরুদ্ধে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ দায়ের করলেন পুনম।

এই মুহূর্তে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন পুনম। মুম্বই পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, স্বামী স‍্যাম বম্বে (Sam Bombay)-এর বিরুদ্ধে মারধোরের অভিযোগ করেছেন পুনম। এরপরেই সোমবার রাতে স‍্যামকে গ্রেফতার করা হয়। হঠাৎই বিয়ে করেছিলেন পুনম। কিন্তু বিয়ের একুশ দিনের মধ্যে স্বামীর বিরুদ্ধে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ করেছিলেন তিনি। গোয়ায় হাসিমুখে গিয়ে স‍্যামের হাতে অত্যাচারিত হয়েছিলেন পুনম। সেই সময়েও এফআইআর দায়ের করেছিলেন তিনি।

আরো পড়ুন -   হানিমুনে এসে গোপন ইচ্ছেপূরণ হল মথুরবাবুর

একটি সাক্ষাৎকারে পুনম জানিয়েছিলেন, স্যামের সঙ্গে তাঁর কথা কাটাকাটি শুরু হয়ে পরে যা বেড়ে যায়। এরপরেই তিনি পুনমকে মারতে শুরু করেন। স্যাম পুনমের গলা টিপে ধরলে পুনমের দম বন্ধ হয়ে আসছিল। তিনি কোনোক্রমে নিজেকে ছাড়ালে স্যাম পুনমের মুখে ঘুষি মারেন। এরপর তাঁর চুল ধরে টেনে-হিঁচড়ে নিয়ে গিয়ে খাটের কোণায় তাঁর মাথা ঠুকে দেন। কিন্তু এরপরেও স্যাম থামেননি। তিনি পুনমের শরীরের উপর বসে তাঁর উপর নির্যাতন চালান। কিন্তু এই অভিযোগের পর এক সপ্তাহের মধ্যে পুনম বলেন, তাঁদের মনোমালিন্য মিটে গিয়েছে।

আরো পড়ুন -   অভিষেকের বদলে অন্য অভিনেতাকে বাবা বলে ফেলেন আরাধ্যা

স্যামকে ভালোবেসে আরও একবার সংসার পাততে চেয়েছিলেন পুনম। তিনি মনে করেছিলেন, তাঁর স্বামীর তাঁকে ভালোবাসবেন। তাই সবকিছু ভুলে একসঙ্গে সংসার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। তাঁর মতে, সব বিয়েতেই চড়াই-উতরাই থাকে। কিন্তু আবারও স্যামের হাতে পুনম অত্যাচারিত হলেন।

আরো পড়ুন -   আত্মবিশ্বাসের ছোঁয়া ঋতাভরীর ছবিতে, কাকে বিশ্বাস করতে শুরু করলেন অভিনেত্রী!

রাজ কুন্দ্রার পর্ণোগ্রাফি ব্যবসার বিরুদ্ধে মুম্বই পুলিশকে সহযোগিতা করেছিলেন পুনম ও শার্লিন চোপড়া (Sherlyn Chopra)। সেই সময় তাঁরা জানিয়েছিলেন, রাজ নিউকামারদের প্রলোভন দেখিয়ে পর্ণোগ্রাফি করতে বাধ্য করেন। পুনম ও শার্লিন এই ঘটনার শিকার হয়েছিলেন।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Poonam Pandey (@poonampandeytv)

Related Articles

Back to top button