Bengali SerialHoop Plus

Mohor: অভিষেকের শ্রাদ্ধের দিনেই ‘মোহর’ ধারাবাহিকের সমাপ্তি, শোকস্তব্ধ প্রতীক লিখলেন খোলা চিঠি

২০১৯ সালের অক্টোবর মাস থেকে শুরু করে ২০২২ সালের এপ্রিল মাস। বর্তমান বাংলা ধারাবাহিক গুলির মধ্যে সবথেকে পুরনো ধারাবাহিক হলো মোহর। আর আজ মোহরের সুদীর্ঘ যাত্রাপথের ইতি হয়েছে। রবিবার দুপুর দুটোয় শেষবারের মতো সম্প্রচারিত হলো মোহর। এক সময় টানা বাংলার সেরা ধারাবাহিক ছিল মোহর। মোহরের থেকে শীর্ষস্থানে শিরোপা ছিনিয়ে নিতে মিঠাইকে শুরুর দিকে বেগ পেতে হয়েছিল। আর তারপর এক বছর যেন দ্বীপান্তরিত হবার মতো দুপুরে নিশ্চুপভাবে নির্বাসন কাটাল মোহর। দুপুর হোক বা সন্ধ্যে মোহর-শঙ্খ জুটি সব সময় দর্শকদের সমান ভালোবাসা পেয়ে এসেছে।

আজ প্রসঙ্গক্রমে অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের শ্রাদ্ধানুষ্ঠান। কালজয়ী এই অভিনেতা মোহর ধারাবাহিকের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ ছিলেন। ধারাবাহিক আজ শেষ হয়ে গেল। শুটিং সেটে পড়ে রইল ধুলোমলিন কিছু স্মৃতি। এই মন খারাপের আবহে সোশ্যাল মিডিয়ায় কলম ধরলেন মোহর ধারাবাহিকের প্রধান অভিনেতা প্রতীক সেন। শঙ্খ কয়েকটি প্রজ্বলিত মোমবাতির ছবি দিয়ে লেখেন,’ আপাতত এটুকুই থাক। ধন্যবাদ জানাই সকল দর্শক-বন্ধুদের। অনেক ধন্যবাদ স্টার জালসা… শ্রদ্ধা জানাই লীনা গঙ্গোপাধ্যায় এবং শৈবাল বন্দ্যোপাধ্যায়কে। এত সুন্দর একটা গল্প ভাবার জন্য। আর সেখানে আমাকে নির্বাচন করার জন্য।আমার সকল সতীর্থদের জন্য রইল অনেক ভালোবাসা। আর অনেক ভালোবাসা জানাই তাঁদের, যাঁদের অক্লান্ত পরিশ্রম ছাড়া এই ৭৮৩ পর্বের সমুদ্রে আমাদের জাহাজটা মাথা উঁচু করে থাকতে পারতো না…আজ ৩/৪/২০২২ দিনটা চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। কাকতালীয়ভাবে আজ অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের শ্রাদ্ধ অনুষ্ঠান। আর আজই ‘মোহর’-এর অন্তিম পর্ব। খুব অদ্ভুতভাবে আজ মিঠুদাকে শেষবারের মতো পাবো। সকলের মাঝে লোকচক্ষুর আড়ালে থাকবে সে…তারপর তাঁরও অনন্ত যাত্রা শুরু হবে… সবাই ভালো থাকবেন। সুস্থ থাকবেন। সঙ্গে থাকবেন। দেখা হবে আবার। খুব তাড়াতাড়ি’।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Pratik Sen (@pratiksen60)

সিরিয়ালের শেষ দিনের শুটিংয়ের কিছু ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ্যে আসে। যেখানে শেষ বারের জন্য শট দেন মোহর রূপে সোনামণি সাহা। প্রয়াত অভিনেতা অভিষেক চট্টোপাধ্যায় কে সম্মান জানিয়ে তাঁর ছবির সামনে গোটা ইউনিট দাঁড়িয়ে কেক কাটেন। আজ অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের শ্রাদ্ধশান্তির অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন লাবনী সরকার, সোমা চক্রবর্তী ,অঙ্কুশ-ঐন্দ্রিলা, তাপস পালের স্ত্রী কন্যা, শতাব্দী রায়, রাজ চক্রবর্তী সহ অনেকে।