Hoop PlusRegional

Puneeth Rajkumar: হৃদরোগে প্রয়াত দক্ষিণী সুপারস্টার পুনিত রাজকুমার

বিনোদন জগতে আবারও এক বড় ধাক্কা। আবারও এক নক্ষত্রপতন। কার্ডিয়াক অ্যারেস্টের ফলে আবারও ঘটল অঘটন। মৃত্যু হল কন্নড় সুপারস্টার পুনিত রাজকুমার (Puneeth Rajkumar)-এর। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল মাত্র ছেচল্লিশ বছর।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Viral Bhayani (@viralbhayani)

29 শে অক্টোবর সকালে জিমে ওয়ার্কআউট করার সময় পুনিত হঠাৎই বুকে ব্যথা অনুভব করেন। তৎক্ষণাৎ তাঁকে বেঙ্গালুরুর বিক্রম হসপিটালে ভর্তি করা হয়। হসপিটাল সূত্রে প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, হসপিটালের এমার্জেন্সি বিভাগে নিয়ে আসার সময় পুনিত অচেতন ছিলেন। চিকিৎসকের প্রচেষ্টা সত্ত্বেও তাঁর শারীরিক অবস্থা ক্রমশ হাতের বাইরে বেরিয়ে যায়। দুপুর আড়াইটে নাগাদ প্রয়াত হন পুনিত। তাঁর আকস্মিক মৃত্যুর খবর শুনে বিক্রম হসপিটালের বাইরে শোকস্তব্ধ হয়ে যান তাঁর অনুরাগীরা। কারণ তাঁদের কাছে পুনিত ছিলেন একজন সমদরদী মানুষ।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Instant Bollywood (@instantbollywood)

দক্ষিণ ভারতে এম.জে.রামচন্দ্রন (M.J.Ramchandran)-এর পর যদি কোনো অভিনেতা সাধারণ মানুষের কথা ভেবেছিলেন, তিনি হলেন পুনিত। কিংবদন্তী কন্নড় সুপারস্টার রাজকুমার (Rajkumar)-এর কনিষ্ঠ পুত্র পুনিত রাজকুমার তাঁর জীবদ্দশায় মোট উনত্রিশটি কন্নড় ফিল্মে অভিনয় করেছিলেন। কিন্তু একজন তারকা হওয়া সত্ত্বেও তিনি ছিলেন মাটির মানুষ। 2013 সাল থেকে 2015 সাল অবধি লাগাতার দুই বছর তিনি কর্ণাটক সর্ব শিক্ষা অভিযানের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর ছিলেন। শুধুমাত্র সমাজের সর্বস্তরে শিক্ষার আলো পৌঁছে দেওয়াই নয়, সংবিধানে শিক্ষার অধিকার সংক্রান্ত তথ্য সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছে দিয়েছিলেন পুনিত। এমনকি শিক্ষা সংক্রান্ত বিভিন্ন আইন নিয়েও সচেতনতার প্রয়াস চালিয়েছিলেন তিনি। এমনকি পুনিতের প্রচেষ্টায় আরটিই অ্যান্থেমকে কন্নড় ভাষায় তর্জমা করা হয়। রাধিকা পন্ডিত (Radhika Pandit)-এর সঙ্গে পুনিত একটি ভিডিও তৈরি করেছিলেন যাতে ছাত্র-ছাত্রীদের বিদ্যালয়মুখী করার জন্য ছিল বিশেষ প্রয়াস। এমনকি পুনিত স্কিল ডেভলপমেন্ট বোর্ডের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর ছিলেন। কিন্তু সমাজসেবামূলক কর্মের জন্য কোনো অর্থ নিতে চাননি পুনিত।

ব্যাঙ্গালোর স্টুডেন্ট কমিউনিটি থেকে পুনিতের উদ্দেশ্যে শ্রদ্ধা জানিয়ে টুইট করা হয়েছে। সেই টুইট থেকে জানা গেছে, মাইগ্র‍্যান্ট সমস্যা, ভ্যাক্সিনেশন সবকিছুর সাথেই অঙ্গাঙ্গী ভাবে জড়িত ছিলেন তিনি। পুনিত চেয়েছিলেন প্রত্যন্ত এলাকার ছাত্র-ছাত্রীরা যেন শিক্ষা ও বাণিজ্যমূলক ট্রেনিং থেকে বঞ্চিত না হয়। 1800 ছাত্র-ছাত্রীর বিনামুল‍্যে শিক্ষার ব্যবস্থা করা ছাড়াও 45 টি অবৈতনিক বিদ্যালয় তৈরি করেছিলেন পুনিত। এছাড়াও 26 টি অনাথাশ্রম, 16 টি বৃদ্ধাশ্রম ও উনিশটি গোশালা তৈরি করেছেন তিনি। সমাজের সর্বস্তরে রেখে গিয়েছেন তাঁর অবদান। চলে যেতে যেতেও করে গেছেন তাঁর চক্ষুদান। পুনিত শুধু তারকাই নন, অনুরাগীদের ভালোবাসা ও তাঁর কর্মকান্ড তাঁকে করে তুলেছে মহাতারকা।

পুনিতের অকালপ্রয়াণে শোকপ্রকাশ করেছেন কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী বাসবরাজ এস.বোম্মাই (Basabaraj S. Bommai), প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi), অভিষেক বচ্চন (Abhishek Bachchan), তমন্না ভাটিয়া (Tamanna Bhatia), সিদ্ধার্থ (Siddharth), মহেশ বাবু (Mahesh Babu), পূজা হেগড়ে (Puja Hegde) প্রমুখ। ইউএস থেকে পুনিতের কন্যা ভারতে পৌঁছানোর পর রবিবার তাঁর শেষকৃত‍্য সম্পন্ন করা হবে। কর্ণাটক সরকারের তরফে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তাঁর শেষকৃত‍্য সম্পন্ন করা হবে। এই মুহূর্তে শেষ শ্রদ্ধা জানানোর জন্য তাঁর পার্থিব শরীর রাখা হয়েছে শ্রী কান্তিরাবা স্টেডিয়ামে। পুনিতকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে সমগ্র কর্ণাটকে দুই দিনের কর্মবিরতি ঘোষিত হয়েছে। কর্ণাটক সরকারের তরফে ইতিমধ্যেই প্রশাসনকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, যাতে কোনোরকম অশান্তি না সৃষ্টি হয়। রবিবার পুনিতের পিতা রাজকুমারের স্মৃতিসৌধের পাশে তাঁর অন্তিম ক্রিয়া সম্পন্ন হবে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Sonu Nigam (@sonunigamofficial)

Related Articles

Back to top button