নিজ হাতে অসহায়দের পরিয়ে দিলেন মাস্ক, কোভিড মোকাবিলায় ব্যারাকপুরের পাশে বিধায়ক রাজ

2 রা মে ভোটের ফল বেরিয়ে গেছে। শুভশ্রী (subhasree ganguly)-র বিশ্বাসের মর্যাদা রেখেছেন আমজনতা। ব্যারাকপুর নির্বাচনে জয়ী হয়ে এই বছর ‘রাজসিংহাসনে’ বসেছেন রাজ চক্রবর্তী (Raj Chakraborty)। ব্যারাকপুর কেন্দ্রের বিধায়ক হয়েছেন রাজ। বিধায়ক হয়ে কোনো জয়োৎসব করেননি রাজ। করোনা পরিস্থিতিতে পথে নেমে কাজ শুরু করে দিয়েছেন তিনি।

করোনার বেলাগাম ঢেউ ক্রমশ গ্রাস করছে মানবসমাজকে। এমতাবস্থায় রাজ মাস্ক ও স‍্যানিটাইজার বিলি করলেন পথে নেমে। এমনকি একজন বৃদ্ধা মহিলাকে তিনি মুখে মাস্ক পরিয়ে দিলেন। রাজের এই কর্মকান্ড তাঁর ফ্যানপেজ থেকে শেয়ার করা হয়েছে। এই পোস্টটি শেয়ার করেছেন শুভশ্রীও। কিন্তু শুভশ্রী এই পোস্ট করামাত্রই সোশ্যাল মিডিয়ায় রাজকে ট্রোল করা শুরু হয়ে গিয়েছে। নেটিজেনদের একাংশ বলতে শুরু করেছেন, মাস্ক ও স‍্যানিটাইজার বিলি করে করোনা তাড়ানো যাবে না। অনেকের ধারণা, রাজ এগুলি পাবলিসিটির জন্য করছেন। অনেকে আবার বলছেন, এখন তো মল বন্ধ, তাই রাজ স্থলে নেমে কাজ করছেন, মল খুললেই তাঁকে আর দেখা যাবে না।

তবে যেকোন ভালো কাজের সময় মানুষকে অনেক কথাই শুনতে হয়। রাজ তা জানেন। এই কারণে তিনি এইসব ট্রোলের কোনো প্রতিক্রিয়া না জানিয়ে নিজের মতো কাজ করে চলেছেন।

তার মধ্যেই ব্যারাকপুর নির্বাচন শেষ করার পর থেকেই রাজ ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা সামলাচ্ছেন ছোট্ট ইউভান (yuvan)-কে। ইউভানের ঠাকুমা ইউভানকে দুটো ঝুঁটি করে চুল বেঁধে দিয়েছেন। রাজ ইউভানকে কোলে নিয়ে আদর করছেন। যদিও শুভশ্রী আগের থেকে এখন অনেকটাই সুস্থ। প্রায় সতেরো দিনের উপর হোম আইসোলেশনে রয়েছেন তিনি। এবার চিকিৎসকের গ্রীণ সিগন্যাল পেলেই ইউভানের কাছে এসে তাকে আদর করবেন ইউভানের মা।

নিজেই একটি ভিডিও করে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন শুভশ্রী। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে একটি খাটে শুয়ে রয়েছেন তিনি। তাঁর চারপাশে ঘুরে বেড়াচ্ছে তাঁর চারপেয়ে পোষ‍্য সন্তানরা। ভিডিওতে শুভশ্রী নিজেই জানিয়েছেন, আগের থেকে অনেকটা ভালো থাকলেও তাঁর দূর্বলতা এখনও কমেনি। শুভশ্রীর শারীরিক সুস্থতা কামনা করার জন্য নিজের অনুরাগীদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি। শুভশ্রীর মা বলেছেন, দুধের শিশুকে ছেড়ে থাকার যে কষ্ট তা একমাত্র কোনো মা-ই বুঝতে পারবেন।