Hoop PlusBollywood

Raj-Shilpa: বিতর্ক ভুলে স্বামীর হাত ধরে মন্দিরে পুজো দিলেন শিল্পা শেঠি

আর্থার রোড জেল থেকে জামিনে মুক্ত হওয়ার পর রাজ কুন্দ্রা (Raj kundra) নিজেকে আড়ালেই রেখেছিলেন। ডিঅ্যাকটিভেট করে দিয়েছিলেন তাঁর সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টও। এমনকি পারিবারিক নবরাত্রি পুজোয় তাঁর দেখা মেলেনি। একসময় শোনা গিয়েছিল, শিল্পা (Shilpa Shetty)নাকি রাজকে ডিভোর্স দিতে চলেছেন। কিন্তু সাম্প্রতিক কালের ছবি দেখে মনে হচ্ছে না এই সম্ভাবনা রয়েছে। সম্প্রতি হিমাচলের একটি মন্দিরে রাজ ও শিল্পাকে একসঙ্গে পুজো দিতে দেখা গেছে।

মুহূর্তেই এই ছবি নেটদুনিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। ভাইরাল হওয়া ছবিগুলিতে দেখা যাচ্ছে, রাজ ও শিল্পা হাত ধরাধরি করে একটি মন্দিরে পুজো দিতে ঢুকছেন। এমনকি টুইনিং করে হলুদ রঙের পোশাক পরেছেন তাঁরা। তবে রাজ অনেকটাই রোগা হয়ে গিয়েছেন। তাঁর গালে ফ্রেঞ্চকাট দাড়ি। এতদিন শিল্পা নিজের ইন্সটাগ্রাম স্টোরিতে পুত্রসন্তান ভিয়ান (Viaan) ও কন্যা সামিশা (Samisha)-র সঙ্গে অনেক ছবি ও ভিডিও শেয়ার করলেও রাজের সঙ্গে তাঁকে একটি বারের জন্য দেখা যায়নি। এমনকি তাঁর ইন্সটাগ্রাম স্টোরিতে এবারেও তাঁকে মন্দিরে একা পুজো দিতে দেখা গেছে। রাজ নেই সেখানে।

আরো পড়ুন -   Farrukh Jaffar: ভারতের প্রথম রেডিও ঘোষক, প্রয়াত অমিতাভ বচ্চনের এই সহ-অভিনেত্রী

হিমাচল প্রদেশের দুই বিখ্যাত সতীপীঠ জ্বালাজি দেবী ও মা চামুন্ডা দেবীর মন্দিরে এদিন পুজো দিয়েছেন শিল্পা ও রাজ। তাঁদের ঘিরে ছিল নিরাপত্তা বেষ্টনী। একটি ছবিতে দেখা গিয়েছে, গলায় চেলি জড়িয়ে দেবীকে প্রণাম করছেন শিল্পা।

আরো পড়ুন -   জনপ্রিয়তা পেতেই মামলা করেছেন জুহি চাওলা! কুড়ি লক্ষ টাকা জরিমানার নির্দেশ দিল্লি হাইকোর্টের

জুলাই মাসে পর্ণোগ্রাফি কান্ডে মুম্বই পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছিলেন রাজ। এরপর একাধিক বার তাঁর জামিন নামঞ্জুর হয়। রাজের বিরুদ্ধে বয়ান দেন শার্লিন চোপড়া (Sherlyn Chopra)। শিল্পাকেও মুম্বই পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের মুখে পড়তে হয়। কিন্তু শিল্পা জানান, রাজের পর্ণোগ্রাফিক কন্টেন্ট বানানোর ব্যাপারে তিনি কিছুই জানতেন না। এমনকি জানতেন না, হটশটস অ্যাপের ব্যাপারেও যেখানে কন্টেন্টগুলি অবৈধ ভাবে আপলোড করা হত। তবে শার্লিন দাবি করেছিলেন, শিল্পা সবকিছুই জানেন। রাজের সঙ্গে শিল্পার ছবি ভাইরাল হওয়ার পর এখন শুধুমাত্র শার্লিন নন, অনেকেই এই দাবিতে সীলমোহর দিচ্ছেন।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Bombay Times (@bombaytimes)

Related Articles

Back to top button