Hoop PlusBollywood

Kangana-Rakhi: কঙ্গনার গলা দিয়ে কুকুরের ‘ভৌ ভৌ’, এ কেমন কেরামতি দেখালেন রাখি সাওয়ান্ত!

রাখি সাওয়ান্ত (Rakhi Sawant) মানেই বিতর্ক। রাখি মানে একদিকে যেমন বিনোদন, অপরদিকে আলটপকা মন্তব্য। বলিউড ইন্ডাস্ট্রির স্টারদের কাউকে ছেড়ে কথা বলেন না রাখি। সম্প্রতি ইন্সটাগ্রামে রাখি একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন। সেই থেকে আবার শুরু হয়েছে বিতর্কের সূত্রপাত।

কারণ রাখির এই ভিডিওটি যেমন তেমন ভিডিও নয়। রাখির শেয়ার করা ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে কঙ্গনা রাণাওয়াত (Kangana Ranaut)-কে। কঙ্গনা একটি অনুষ্ঠানে নিজের বক্তব্য রাখছেন। রাখির শেয়ার করা ভিডিওতে কঙ্গনার কন্ঠস্বরের পরিবর্তে শোনা যাচ্ছে সারমেয়র ‘ভৌ ভৌ’ শব্দ। ভিডিওটি শেয়ার করে রাখি লিখেছেন, কঙ্গনা দেশদ্রোহী। কঙ্গনা বলেছিলেন, 1947 সালে যা পাওয়া গিয়েছিল তা ভিক্ষা, কিন্তু 2014 সাল থেকে ভারতবর্ষ প্রকৃত অর্থে স্বাধীন। কঙ্গনার এই বিতর্কিত মন্তব্যের পর অনেকেই মনে করছেন কঙ্গনা বিজেপির প্রতি পক্ষপাতিত্ব করছেন।

আরো পড়ুন -   আজও অটুট ভালোবাসা, হাসপাতাল থেকে ফেরার পথে দিলীপের কপালে স্নেহের চুম্বন স্ত্রীর

অনেকেই বলতে শুরু করেছেন, কঙ্গনা বিজেপির প্রভাবেই ‘পদ্মশ্রী’-র মতো অনন্য সম্মান পেয়েছেন। ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ (Ramnath Kovind)-এর হাত থেকে পদ্মশ্রী গ্রহণ করার ছবি ইন্সটাগ্রামে শেয়ার করে কঙ্গনা লিখেছেন, একটি মেয়ে হিসাবে তিনি তাঁর প্রাপ্য সম্মান পেয়েছেন। তিনি ভারতের নাগরিকদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

আরো পড়ুন -   Jamuna Dhaki: তার না ছুঁয়েই দিব্যি গিটার বাজিয়ে গান গাইলেন যমুনা ঢাকি, রইলো ভিডিও

ভিন্ন রাজনৈতিক মতাদর্শ হতেই পারে। কিন্তু ভারতবর্ষের স্বাধীনতা নিয়ে কঙ্গনা মন্তব্য করার আগে তাঁর মনে করা উচিত, স্বাধীনতা সংগ্রামীরা সেদিন ভারতমাতার শৃঙ্খল মোচন করতে স্ব-ইচ্ছায় নিজেদের রক্ত ঝরিয়েছিলেন। স্বাধীনতা কখনও ভিক্ষা হতে পারে না। তবে নারীর প্রকৃত স্বাধীনতার জন্য নারীকেই লড়াই করতে হবে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Rakhi Sawant (@rakhisawant2511)

Related Articles

Back to top button