Hoop PlusBollywood

Rhea Chakraborty: অবশেষে মোবাইল, ল্যাপটপ ও ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের দখল পেলেন রিয়া চক্রবর্তী

গত এক বছর ধরে রিয়া চক্রবর্তী (Rhea Chakraborty)-কে নিয়ে কম বিতর্ক হয়নি। সুশান্ত সিং রাজপুত (Sushant Singh Rajput)-এর মৃত্যুর পর রিয়া ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছিলেন সুশান্তের পরিবার। এনসিবি গ্রেফতার করেছিল রিয়াকে। সেই সময় বাজেয়াপ্ত করা হয়েছিল তাঁর মোবাইল, ল্যাপটপ ও ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের নথি। এবার সেগুলি আবার ফিরে পেলেন রিয়া।

এক বছর ধরে মোবাইল, ল্যাপটপ ও ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের যাবতীয় নথি মাদক মামলা সংক্রান্ত অর্থাৎ এনডিপিএস আদালতের অনুমতিতে ফিরিয়ে দেওয়া হল রিয়াকে। নিজের এই যাবতীয় দ্রব্য ফেরত পাওয়ার জন্য রিয়া যে আবেদন জমা দিয়েছিলেন তাতে লেখা ছিল, 2020 সালের সেপ্টেম্বর মাসের 16 তারিখে তাঁর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের নথি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। রিয়া পেশায় একজন মডেল ও অভিনেত্রী। নিজের ও তাঁর ভাই শৌভিক চক্রবর্তী (Shouvik Chakraborty)-র যাবতীয় খরচ বহন করেন তিনি। এছাড়াও তাঁর সংসারে ও কর্মক্ষেত্রে যেসব মানুষরা কাজ করেন, তাঁদের বেতনের জন্য টাকা-পয়সা তোলা ও জমানোর জন্য নিজের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের প্রয়োজন রয়েছে রিয়ার। ফলে দশ মাস ধরে তাঁর অ্যাকাউন্টগুলি বাজেয়াপ্ত করে রাখায় রিয়ার জীবন যাপনে অসুবিধা হচ্ছে। এই কারণ ছাড়াও আরও একাধিক কারণ দর্শানো হয়েছে রিয়ার আবেদনপত্রে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Rhea Chakraborty (@rhea_chakraborty)

স্পেশ‍্যাল পাবলিক প্রসিকিউটর অতুল সারপান্ডে (Atul Sarpandey) জানিয়েছেন, সুশান্ত মামলার তদন্তকারী আধিকারিক রিয়াকে তাঁর জিনিসপত্র নিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। কিন্তু আপত্তি রয়েছে অন্য কারণে। এনসিবি-র প্রতিনিধি আইনজীবী অতুলের যুক্তি অনুযায়ী, মাদক মামলার তদন্ত শেষ না হওয়ার কারণে এই মুহূর্তে বাজেয়াপ্ত করা অ্যাকাউন্টগুলি ছেড়ে দিলে তদন্তের ক্ষতি হতে পারে। কিন্তু আদালতের রায় রিয়ার পক্ষেই গিয়েছে।

আরো পড়ুন -   অক্ষয় কুমারকে ভরসা করা যায় না: রবীনা ট‍্যান্ডন

2020 সালের 14 ই জুন মুম্বইয়ের বান্দ্রার বিলাসবহুল অ্যাপার্টমেন্ট থেকে সুশান্তের ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করে মুম্বই পুলিশ। সন্দেহের তীর ঘোরে রিয়ার দিকে। সুশান্তকে মাদক সরবরাহ করার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় তাঁকে। এক মাস বায়কুল্লা জেলে বন্দি ছিলেন রিয়া। গত বছর অক্টোবর মাসে জামিন পেয়েছেন তিনি।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Rhea Chakraborty (@rhea_chakraborty)

Related Articles

Back to top button