Hoop PlusTollywood

এক ধাক্কায় কমলো বয়স, সুন্দরী এই অভিনেত্রীকে চিনতে পারছেন কি! রইলো ভিডিও

সোশ্যাল মিডিয়ায় অনুরাগীদের সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছিলেন নিজের কঠিন সময়ের কথা। স্বভাবে বেশ প্রাণোচ্ছ্বল এবং চনমনে তিনি। যদিও সোশ্যাল মিডিয়া তাঁর হাসি-খুশি ছবির পিছনেও রয়েছে একটা অবসাদগ্রস্ত মন। কঠিন একটা লড়াইয়ের গল্প অনুরাগীদের সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছেন তিনি।

৮ মাসের মধ্যে পর পর দুটি অস্ত্রোপচার হয়েছিল অভিনেত্রী ঋতাভরী চক্রবর্তীর। এরপরই শরীরে পরিবর্তন আসে নায়িকার। কয়েক মাস বিছানায় শুয়ে দিন কাটাতে হয়েছিল রূপোলি পর্দার এই নায়িকাকে। স্বাভাবিক জীবনে ফেরা, ওজন বেড়ে যাওয়া, একটা সময় মানসিক অবসাদের মধ্যে দিয়েও গিয়েছিলেন অভিনেত্রী। কিন্তু সেই সময় কাটিয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে নেহাত কম সময় লাগেনি তাঁর।

এখন তিনি ফিরে এসেছেন পুরোপুরি অন্য অবতারের। পুরানো ঋতাভরীর সেই চেহারার খোলস ছেড়ে তিনি হয়ে উঠেছেন নতুন এবং অনন্য ঋতাভরী চক্রবর্তী। অন্যান্য অভিনেত্রীদের থেকে তিনি বরাবর অনেকটাই আলাদা পথে হাঁটেন। তিনি তার এই নতুন লুকের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করতে যথেষ্ট স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন।

সম্প্রতি তাকে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি মিষ্টি রিল পোস্ট করতে দেখা গিয়েছে। ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করা সেই মিষ্টি রিলে মন ভরে গিয়েছে অনুরাগীদের। এক ধাক্কায় অনেকখানি বয়স কমিয়ে একেবারে শিশু হয়ে উঠেছেন তিনি। এই ভিডিওটিতে অভিনেত্রীকে একটি টিয়া সবুজ রঙের পোশাক পরে কিশোর কুমারের বিখ্যাত কালজয়ী গান হাল ক্যায়সা হে জনাব কা গানে গলা মেলাচ্ছেন তিনি। ছবিতে তিনি বেবি ফিল্টার ব্যবহার করেছেন। যার ফলে তার মুখ একদম শিশুর মত হয়ে গিয়েছে। ইনস্টাগ্রাম রিলসটি পোস্ট করে তিনি ক্যাপশনে লেখেন যে তিনি একজন টোয়াড বেবি।

তার এই ইনস্টাগ্রাম রিলসে যে মন গলেছে নেটিজেনদের তা অভিনেত্রীর কমেন্ট বক্স দেখলে স্পষ্ট বোঝা যায়। একজন নেটিজেন তো তাঁকে বিশ্বব্রহ্মাণ্ডে সবথেকে সুন্দরী মহিলা বলেও উল্লেখ করেন।

প্রসঙ্গত ঋতাভরীকে এবার আবির চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে জুটি বাঁধতে দেখা যাবে ফাটাফাটি ছবিতে। প্রযোজনা করবেন শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় এবং নন্দিতা রায়। নারী দিবসের দিন এই ছবিটির ঘোষণা করা হয়।