Hoop PlusTollywood

Rituparna Sengupta: বিমানবন্দরে হেনস্থার শিকার অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা, ক্ষোভে ফেটে পড়লেন সোশ্যাল মিডিয়ায়

শহর ছাড়তে গিয়ে কলকাতা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে হেনস্থার শিকার হলেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। আজ সোশ্যাল মিডিয়ায় এই অভিযোগে সরব হলেন অভিনেত্রী। একটি সিনেমার শুটিংয়ে তার মৌলি যাওয়ার কথা ছিল। সেই সিনেমার শুটিং এর উদ্দেশ্যে তিনি বিমানবন্দরে উপস্থিত হন।

ইন্ডাস্ট্রিতে এখন তার জুড়ি মেলা ভার। ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত এমনই একজন অভিনেত্রী যিনি অভিনয়ের খাতিরে তথাকথিত সকল গ্ল্যামার এর মুখোশ ছেড়ে বেরিয়ে আসতে সাবলীল। শুটিংয়ের জন্য বিদেশ ভ্রমণ তার নিত্যদিনের ঘটনা। যদিও আজ তাকে যে সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় এত বছর বিদেশ যাত্রার ইতিহাসে তাকে কোনদিনও হতে হয়নি। এই ঘটনায় অভিনেত্রী খুবই আঘাত পান এবং চমকে ওঠেন। বিমানবন্দরেই তার সাথে এমন আচরণ করা হয় যে তিনি মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন। বিমানবন্দরেই কান্নায় ফুঁসে ওঠেন তিনি। বিমানবন্দরের আধিকারিকদের হাজার অনুরোধ সত্বেও বিমানে ওঠা তার আর হয়ে ওঠে না।

ভোর ৫.৪০ এর ফ্লাইটে তিনি আমেদাবাদের উদ্দেশ্যে রওনা দেবেন। গতকাল রাত পর্যন্ত এটাই ঠিক ছিল। বিমানটি আমেদাবাদে অবতরণের সময় ছিল সকাল ৭.৪৫। অভিনেত্রী নিজের বোর্ডিং সময়ের পরে বিমান বন্দরে এসে উপস্থিত হন। তার বোর্ডিং সময় ছিল ৪.৫৫। তিনি যখন বিমান বন্দরে আসেন তখন সময় ৫.১০। আর এতেই বিমানবন্দরে উপস্থিত থাকা আধিকারিকগন তাকে বিমান বন্দরে প্রবেশ করতে বাধা দান করে। অভিনেত্রী এও জানান যে গত সাত আট দিন ধরে তিনি বিমান যাত্রা করছেন। কার কাছে সাম্মানিক পাসপোর্টও রয়েছে। অভিনেত্রীর জোরালো দাবী যে তিনি বিমানের বোর্ডিং টাইমের আগেই পৌঁছে গিয়েছিলেন। কোন ভুল বোঝাবুঝির জন্য তাকে বিমানে উঠতে দেওয়া হয়নি। এত বছর ধরে তিনি বিমান যাত্রা করছেন এই ঘটনা প্রথম। আর এতেই মানসিকভাবে তিনি বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছেন।

সেই বিমান সংস্থার উপর যাবতীয় রাগ সোশ্যাল প্ল্যাটফর্মে উগরে দিয়ে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন তিনি। টলিউড ইন্ডাস্ট্রি প্রথম সারির অভিনেত্রীকে এভাবে বিমানবন্দরে হেনস্থার মুখে পড়ার কারণে এয়ারপোর্ট অথরিটি অফ ইন্ডিয়ায় আধিকারিকদের ও কাঠ লগড়ায় তুলেছেন অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত।