Hoop PlusTollywood

Ritwick Chakraborty: হিরোসুলভ চেহারা নয়, শুনতে হয়েছিল ঋত্বিককে

নিজের নামের সঙ্গে ‘তারকা’ তকমা জুড়তে বরাবরের আপত্তি ঋত্বিক চক্রবর্তী (Ritwick Chakraborty)-র। কারণ তাঁর মতে, তারকার সঙ্গে জড়িয়ে থাকে বাণিজ্য। কিন্তু ঋত্বিক অভিনেতা হতে চান। অথচ ইদানিং অধিকাংশ ফিল্মে তিনিই নায়ক। এমনকি সম্প্রতি মুক্তিপ্রাপ্ত ওয়েব সিরিজ ‘মুক্তি’-তে অভিনয় করে আবারও প্রশংসিত ঋত্বিক। অথচ তাঁর চেহারা তথাকথিত নায়কোচিত নয়। ফলে একসময় তাঁকে বডি শেমিং-এর শিকার হতে হয়েছিল।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Ritwick (@ritwickchak_)

তবে একা তিনি নন, এইরকম অনেকেই ইন্ডাস্ট্রিতে বডি শেমিং-এর শিকার হয়ে থাকেন বলে দাবি করেছেন ঋত্বিক। কারণ ঋত্বিক মনে করেন, কাউকে ‘নায়কোচিত নন’ বলার মধ্যেও লুকিয়ে থাকে চোরা বডি শেমিং। তবে এই ধরনের কথা বলা ব্যক্তিরাও বোঝেন না, তাঁরা বডি শেমিং করছেন। ঋত্বিক নিজের চেহারা সম্পর্কে যথেষ্ট সজাগ। তাই ইন্ডাস্ট্রিতে তিনি অভিনেতা হতে চান, নায়ক নন। ঋত্বিকের মতে, চেহারাই যদি সব হত, তাহলে বলিউডে দিলীপ কুমার (Dilip Kumar) ও দেব আনন্দ (Dev Anand) একসঙ্গে নায়ক হতে পারতেন না।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Ritwick (@ritwickchak_)

কারণ দেব আনন্দ সুপুরুষ হলেও দিলীপ কুমার তথাকথিত সুন্দর নন। তাই সৌন্দর্য যেকোন মানুষ বা চরিত্রের চূড়ান্ত মাপকাঠি নয়। বাস্তব ও পর্দা উভয় ক্ষেত্রেই এটি প্রযোজ‍্য বলে মনে করেন ঋত্বিক। তিনি জানেন, একসময় এই নায়কোচিত চেহারার ধারণা বাতিল হয়ে যাবে।

তবে ইদানিং ঋত্বিকদের মতো অভিনেতাদের নায়ক তকমা দেওয়া যা নায়কোচিত চেহারার ধারণা বাতিল করার পক্ষে যথেষ্ট।