Hoop PlusTollywood

Dev: দেবের কাছে হেরে গেলেন স্বয়ং সলমান খান! কিভাবে সম্ভব হলো জানুন

বাংলা ফিল্মের দর্শকদের আবারও হলমুখী করেছে দেব (Dev) ও পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায় (Paran Banerjee) অভিনীত ফিল্ম ‘টনিক’। করোনা পরিস্থিতি এখনও সম্পূর্ণ কাটেনি। কিন্তু তা সত্ত্বেও ‘টনিক’-এর প্রায় প্রতিটি শো হাউসফুল। বাধ্য হয়ে দেবকে শোয়ের সংখ্যা বাড়াতে হয়েছে। এমনকি জি ফাইভ ওটিটি প্ল্যাটফর্মেও যথেষ্ট সফলতা পেয়েছে ‘টনিক’। দেব দর্শকদের ধন্যবাদ জানিয়ে টুইট করে লিখেছেন, জি ফাইভ ইন্ডিয়ার তরফে বিশ্বে ‘টনিক’ এই মুহূর্তে ‘হায়েস্ট ভিউড’ ভারতীয় সিনেমা। টিম ‘টনিক’ অত্যন্ত খুশি।

অপরদিকে জি ফাইভে ‘টনিক’-এর আগে থেকেই সলমান খান (Salman Khan) অভিনীত ফিল্ম ‘রাধে’ ও ‘অন্তিম’ প্রদর্শিত হচ্ছিল। ছবিগুলি তারকাখচিত হওয়া সত্ত্বেও শেষ পর্যন্ত সেগুলি দৌড়ে পিছিয়ে পড়েছে। দেবের দেওয়া তথ্য অনুসারে, বাংলা ফিল্ম ‘টনিক’ এই মুহূর্তে সর্বোচ্চ স্থানে রয়েছে। ফলে ‘টনিক’-এর হাত ধরেই এগিয়ে গিয়েছে বাংলা ফিল্ম।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Dev Adhikari (@imdevadhikari)

প্রকৃতপক্ষে, ‘রাধে’ ও ‘অন্তিম’ দুটি ফিল্ম অ্যাকশনধর্মী। কিন্তু ‘টনিক’-এর মূলমন্ত্র ‘নো প‍্যানিক, ওনলি টনিক’। এই ফিল্মে তুলে ধরা হয়েছে দুটি প্রজন্মের চিন্তাধারা, আশা-আকাঙ্খার যোগসূত্র। কমেডির মধ্যেও রয়েছে ট্র্যাজেডি। উপরি পাওনা আশি বছর বয়সী অভিনেতা পরাণের রিভার রাফটিং, প‍্যারাগ্লাইডিং-এর মতো স্টান্ট। ‘টনিক’-এর সিনেমাটোগ্রাফি সকলের নজর কেড়েছে। ‘টনিক’ সুপারহিট হওয়ার পর দেব দর্শকদের ধন্যবাদ জানিয়ে লিখেছিলেন, করোনা পরবর্তী সব রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে ‘টনিক’।

এবার ওটিটি প্ল্যাটফর্ম জি ফাইভেও রেকর্ড গড়ল ‘টনিক’। তাহলে কি সত্যিই হেরে গেলেন সলমান?

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Salman Khan (@beingsalmankhan)