BollywoodHoop Plus

Shashi Kapoor: প্রকৃত অর্থেই সৎ অভিনেতা, জাতীয় পুরস্কারের মনোনয়ন কেন ফিরিয়ে দিয়েছিলেন শশী কাপুর!

সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায় (Sandhya Mukherjee), হেমন্ত মুখোপাধ্যায় (Hemanta Mukherjee)-র মতো কিংবদন্তীরা অপমানিত হয়ে ‘পদ্মশ্রী’ ফিরিয়ে দিয়েছিলেন। কিন্তু এমন একজন অভিনেতা রয়েছেন যিনি নিজের অভিনয়ে সন্তুষ্ট না হয়ে ফিরিয়ে দিয়েছিলেন জাতীয় পুরস্কার। তিনি, শশী কাপুর (Shashi Kapoor)। ফিল্মের পর্দার নম্র, ভদ্র নায়কের মতোই কাপুর পরিবারের সবচেয়ে নম্র সদস্য ছিলেন শশী। সম্প্রতি ছিল তাঁর চুরাশি তম জন্মবার্ষিকী।

শুধুমাত্র অভিনয় নয়, শশীর বিস্তার ছিল চারিদিকে। দেশি ও বিদেশি একাধিক ফিল্ম প্রযোজনার পাশাপাশি পৃথ্বী থিয়েটারে একাধিক নাটক প্রযোজনা, পরিচালনার পাশাপাশি অভিনয় করেছেন শশী ও তাঁর স্ত্রী জেনিফার কাপুর (Jennifer Kapoor)। ষাট ও সত্তরের দশক জুড়ে একের পর এক ফিল্ম উপহার দিয়েছেন শশী। অধিকাংশ ফিল্ম হিট হয়েছে। কিন্তু তাঁর কেরিয়ারের সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য ফিল্ম হল যশ চোপড়া (Yash Chopra) পরিচালিত ‘ধর্মপুত্র’।

‘ধর্মপুত্র’ তৈরি হয়েছিল 1961 সালে। তার কয়েক বছর আগে হয়ে গিয়েছে দেশভাগ। পার্টিশানের আঁচ এসে পড়েছিল বলিউডেও। বহু মুসলমান কলাকূশলী ভারত ছেড়ে চলে যান পাকিস্তানে। এই ঘটনার প্রভাব পড়েছিল যশ চোপড়ার উপর। ফলে দেশভাগের প্রেক্ষাপটে তৈরি কাহিনী নিয়ে তিনি নির্মাণ করেন ‘ধর্মপুত্র’। দেশভাগের সময় মুসলমান পরিবারের পুত্রসন্তানকে বাঁচানোর জন্য হিন্দু পরিবারের শরণে দিয়ে দেওয়া হয়। পরবর্তী সময় সেই শিশু যুবাবস্থায় হিন্দুত্ব রক্ষায় ব্রতী হয়। ঘটনাচক্রে সে তার প্রকৃত পিতা-মাতাকে আঘাত করার পর জানতে পারে তার আসল পরিচয়।

এই যুবকের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন শশী। প্রকৃত পরিচয় জানার পর তার অন্তরের দ্বন্দ্বকে নিখুঁত ভাবে ফুটিয়ে তুলেছিলেন তিনি। ‘ধর্মপুত্র’ জাতীয় পুরস্কার পেয়েছিল। পরবর্তীকালে শশী একটি সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন, এই ফিল্মে অভিনয়ের জন্য তিনি জাতীয় পুরস্কারের মনোনয়ন পেলেও তা গ্রহণ করেননি। কারণ তাঁর মনে হয়েছিল, তাঁর অভিনয় আরও নিখুঁত হওয়ার প্রয়োজন ছিল।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by RetroBollywood (@retrobollywood)