Hoop PlusReality show

কলকাতায় ফিরতেই ঢাক ঢোল বাজিয়ে বরণ করা হল স্নিগ্ধজিৎ-কে, আরতি করলেন স্ত্রী অদিতি

মুম্বইয়ের দীর্ঘ সঙ্গীত সফরের পর কলকাতার বাড়িতে ফিরলেন গায়ক স্নিগ্ধজিৎ ভৌমিক। প্রথম দিন থেকে গ্র্যান্ড ফিনালে পর্যন্ত দীর্ঘ এই সফর সহজ ছিল না স্নিগ্ধজিৎ-র কাছে। সারেগামাপার এই চড়াই-উতরাই পথ পেরিয়ে তিনি ফিরেছেন কলকাতায়। আর গায়কের এই প্রত্যাবর্তনে ভারী খুশি তাঁর পরিবার।

আর তাঁকে মহাসমারহের সঙ্গে বরণ করে নিলেন তাঁর পরিবরের সকলে। ফুলের মালা, কেক, ঢাক ঢোল এবং আরতির সঙ্গে তাঁকে বরণ করে নেওয়ার জন্য ছিল রাজকীয় আয়োজন। তাঁরা সারেগামাপার বিজয়ীদের তালিকায় সামিল হতে পারেননি ঠিকই কিন্তু বাংলার নাম দেশের প্রতিটি কোণায় ছড়িয়ে দিতে সক্ষম হয়েছেন।

স্নিগ্ধজিৎ-র সেই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে তিনি ঘরে পা রাখতেই থালা এবং ফুলের মালা নিয়ে হাজির তাঁর স্ত্রী অদিতি। সঙ্গে উপস্থিত স্নিগ্ধজিৎ-র কিছু পারিবারিক বন্ধু। পরিবার এবং স্বজনের থেকে এরকম অভ্যর্থনা পেয়ে ভাষাহীন হয়ে পড়েন স্নিগ্ধজিৎ। খুশির চোটে বলেও ফেলেন, ‘উরি শালা’! তার বাড়িতে দেখা যায় তাঁর সতীর্থ অনন্যাকেও। এরপর ফুলের মালা পরিয়ে, কপালে টিকা দিয়ে তাঁকে স্বাগত জানানো হয়। তাঁকেও বরণ করে নেন অদিতি। এরপর একসাথে কেক কাটেন দু’জনে। স্নিগ্ধজিৎকে এতদিন বাদে দেখতে পেয়ে তাঁর বাড়ির সকলেই আত্মহারা।

গতকাল এয়ারপোর্টে পা রেখেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি দেন অনন্যা এবং স্নিগ্ধজিৎ। কতদিন পর আবার ঘরে ফেরা। চোখে মুখে তাঁদের দীর্ঘ পথের ক্লান্তি। অনন্যা এবং স্নিগ্ধজিৎ দুজনেই বাংলার সারেগামাপা মাতিয়ে মুম্বই-এ পা রেখেছিলেন। যদিও তারা হিন্দি সারেগামাপা তে কোন পজিশন পাননি। কিন্তু জিতে নিয়েছেন অগুনতি মানুষের মন।

স্নিগ্ধজিৎ বাংলা সারেগামাপায় দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেছিলেন। যদিও স্নিগ্ধজিৎ কোন ট্রফি নিয়ে আসতে পারেননি মুম্বই থেকে তবুও তাঁর অনুরাগীদের কাছে তিনি প্রকৃত বিজেতা। রবিবার দিনটি বাংলার প্রতিটি মানুষের কাছে খুবই বিশেষ ছিল। কারণ এইদিন সারেগামাপার শেষ হাসি হাসেন দুই বঙ্গতনয়া। প্রথম এবং দ্বিতীয় হন নীলাঞ্জনা রায় ও রাজশ্রী বাগ।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by NEELANJANA RAY (@neelanjanaray)