Hoop PlusBengali Serial

Aishi Bhattacharya: সিঙ্গেল নন মোটেই, মনের মানুষের খোঁজ পেয়েছেন ‘শ্রীময়ী’-এর ‘দিঠি’

স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘শ্রীময়ী’ শেষ হয়ে গেলেও দর্শকের মন থেকে নিঃশেষ হয়ে যায়নি বরং প্রত্যেকটি চরিত্র মানুষের মনের মণিকোঠায় ছাপ রেখে দিয়ে গেছে। যাই হোক, অনুরাগীদের মনে লুকিয়ে থাকা প্রশ্নগুলি কিছুটা উত্তর কুড়োল ‘শ্রীময়ী’ কন্যা ‘দিঠি’র থেকে। তিনি মনে করেন সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে তাঁর দর্শক তাঁকে ভুলে যাবেননা আগেরদিনের মতো। মনে রাখবেন আজীবন। তাছাড়া নতুন কাজ তো আছেই। সবে তো পথ চলা শুরু।

তিনি আরও জানালেন, ‘দিঠি’ চরিত্রের বাইরে বেরোতে চান তিনি। ‘দিঠি’র অবয়ব থেকে সরে আসার জন্যই ওই ধারাবাহিকের ভিডিও, ছবির কাছাকাছি নেই ঐশী ওরফে ‘দিঠি’।তাঁর নাম যে ঐশী, এটা অনেকেই জানেন না। তাই ঐশী হয়েই তিনি তাঁর অনুরাগীদের সান্নিধ্য চান। রবীন্দ্রভারতীর ড্রামা অনার্সের ছাত্রী তিনি। মোটামুটি পড়াশোনার মধ্যেই জীবন কেটে যাচ্ছে তাঁর। তাছাড়া ‘ডানা’ নামে একটি ওয়েব সিরিজের প্রথম সিডিউলে কাজ করেছেন ঐশী। দ্বিতীয় সিডিউলেরও কথা আছে। অবসর সময় কাটাচ্ছেন নেটফ্লিক্স ও আমাজন প্রাইমের সাথে। মিস করেন সেটের বন্ধুদের সাথে আড্ডা, সেলফি, গানবাজনা গুলি। খুব শীঘ্রই মিট করবেন ওঁরা। বিশেষত রুশা চট্টোপাধ্যায় (ঐশীর রুশাদি) ও ঊষসী চক্রবর্তী (ঐশীর ঊষসীদি)-এর সাথে।

অভিনেত্রী এক সাক্ষাৎকারে জানালেন, পাশে পেয়েছেন একজন বিশেষ মানুষকে। নতুন সঙ্গীর আবেশে যে মন মেজাজ বেশ ফুরফুরে তাঁর, তা তাঁর সাথে কথা বললেই বোঝা যায়। তবে নাম বলতে নারাজ ঐশী। ইনড্রাস্টিয়াল প্রেমের গুঞ্জন তাঁর খুব একটা পছন্দ নয়। ওইসব কাঁটাছেড়ার মধ্যে না যাওয়াই ভালো। আর ওই বন্ধুর নাম জানলে নাকি সবাই বুঝে যাবে, তাই না বলাই ভালো বলে মনে হয় তাঁর। তবে দেখাই যাক কবে মেলে ঐশীর প্রাণপ্রিয়ের খোঁজ।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Aishi Bhattacharya (@aishi_here)

‘লাইক’-এর নিরিখে প্রতিভার বিচার করা যায় না, বলে বসলেন ঐশী ‘শ্রীময়ী’র প্রাক্তন কন্যা। তাঁর হাজারো ফলোয়ার্স রয়েছে ইনস্টাগ্রামে, প্রায় ৫০ হাজারের কাছাকাছি। অন্যদের তুলনায় কম হওয়ার দরুন লাইক পান কম। তবে একটুও হতাশ না অভিনেত্রী। তাঁর মতে ভালো কাজ পেলে তিনি আবারও কাজ করতে চান অর্থাৎ দিঠি চরিত্র যেমন তাকে সাফল্য চিনিয়েছে ঠিক তেমন। তাঁর ভাষায়, ‘আগামী পাঁচ বছরে আমি যা কাজ করব বা যে সাফল্য পাব, তাতে এই চরিত্রের অবদান থাকবে’।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Aishi Bhattacharya (@aishi_here)