কচু পাতায় ইলিশ পোড়া ট্রাডিশনাল রেসিপি

ইলিশ মাছ ভালোবাসেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া বিরল, তবে এ কাঁটার জন্য খানিক অসুবিধা হতে পারে। তাও ইলিশ মাছ খাওয়ার জন্য সমস্ত রকম অসুবিধাই সহ্য করতে পারে মাছ প্রেমিক মানুষেরা। অতি সহজে কচু পাতায় ইলিশ পোড়া বানানোর রেসিপি জেনে নিন বাড়িতে অতিথি ওষুধ কিংবা নিজেদের মুখের স্বাদ বদলানোর জন্য এই রেসিপিটি অসাধারণ একটি রেসিপি।

উপকরণ -»
ইলিশ মাছ ১০ টুকরো
টমেটো তিনটি
বড় আকারের দুটি পেঁয়াজ
রসুন ১০ কোয়া
আদা বাটা ১ চা চামচ
সরষের তেল ১ কাপ
বড় আকারের কচুপাতা দু-তিনটি
নুন মিষ্টি স্বাদ মত
শুকনো লঙ্কা স্বাদমতো
কাঁচা লঙ্কা বাটা স্বাদমতো
হলুদ গুঁড়া ১ টেবিল চামচ
লঙ্কাগুঁড়ো স্বাদমতো

প্রণালী -»
কচুপাতা গুলিকে ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে। এরপর টমেটো ও শুকনো লঙ্কাকে ভালো করে পুড়িয়ে নিতে হবে।
এরপর পেঁয়াজ, আদা, রসুন ভালো করে বেটে নিতে হবে। ইলিশ মাছ গুলিকে হলুদ, নুন দিয়ে ভালো করে মাখিয়ে নিতে হবে এরপরে পুড়িয়ে রাখা টমেটো, আদা, পেঁয়াজ, রসুন দিয়ে ভালো করে মেখে নিতে হবে। এরপর পুড়িয়ে রাখা শুকনো লঙ্কা এবং স্বাদমতো কাঁচা লঙ্কা বাটা, লঙ্কা গুঁড়ো, নুন, পরিমাণ মত সরষের তেল দিয়ে ভালো করে মেখে নিতে হবে। এরপর দুটো তিনটে কচুপাতায় ভালো করে সরষের তেল মাখিয়ে মাছ এবং মিশ্রণটি ঢেলে দিয়ে কচুপাতা গুলিকে একটি সুতো দিয়ে বেঁধে নিতে হবে। এরপরেই ভাত করার হাঁড়ির মধ্যে ভাত খানিকটা হয়ে যাওয়ার পরে এই কচু পাতাটা রেখে দিন। আর এটা যদি সম্ভব না হয়, তাহলে একটি কড়ার মধ্যে জল গরম করতে বসান তার ওপরে একটা স্ট্যান্ড বা কোন একটা উঁচু বাটি দিয়ে তার ওপরে কচুপাতাটি আস্তে করে রেখে দিন। দশ পনেরো মিনিট হওয়ার পরে কচুপাতা নামিয়ে, সুতো খুলে গরম গরম পরিবেশন করুন ‘কচু পাতায় ইলিশ পোড়া’। খাওয়ার সময় অবশ্যই কচুপাতা শুদ্ধ খাবেন এতে স্বাদ অনেক বেশি পাবেন।