Hoop SpecialHoop Story

দুই বান্ধবীর এক স্বামী, নেটদুনিয়ায় সমালোচনার মুখে এই পরিবার

একবিংশ শতকের শুরুতে বালাজী টেলিফিল্মস-এর একটি সিরিয়াল ‘কভি সৌতন, কভি সহেলি’ দর্শকদের মধ্যে সাড়া ফেলেছিল। উর্বশী ঢোলাকিয়া ( Urvashi Dholakia) ও অনিতা হসনন্দানি (Anita Hasnandani) দুই বান্ধবী তথা দুই সতীনের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন। এবার বাস্তবেই দেখা গেল এইরকম পরিবার যেখানে দুই বেস্ট ফ্রেন্ড, প্রকৃতপক্ষে দুই সতীন। তাঁদের স্বামী একজন পুরুষ।

এই মুহূর্তে নেটদুনিয়ায় অত্যন্ত জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন পায়েল মালিক (Payal Malik) ও কৃত্তিকা মালিক (Krittika Malik)। তাঁদের স্বামীর নাম আরমান মালিক (Armaan Malik)। তাঁদের এই পলিগ‍্যামি সম্পর্কের কারণেই তাঁদের ইউটিউব চ্যানেল ‘ফ্যামিলি ফিটনেস’ ক্রমশ সুপারহিট হয়ে উঠেছে। এমনকি ইন্সটাগ্রামেও তাঁরা তুমুল জনপ্রিয়। একসময় টিকটকেও তাঁরা বিখ্যাত হয়ে উঠেছিলেন। ইন্সটাগ্রামে কৃত্তিকার ফলোয়ারের সংখ্যা প্রায় 37 লক্ষ। অপরদিকে পায়েলের ফলোয়ার এখনও অবধি প্রায় 19 লক্ষ ছুঁয়েছে। পায়েল ও কৃত্তিকা দুজনে একই রকম পোশাক পরেন, একসাথে শপিং করতে যান। এমনকি একসাথে করওয়া চৌথও পালন করেন তাঁরা। তাঁদের দেখে বোঝা যায় না, তাঁরা একে অপরের সতীন। এমনকি পায়েল, কৃত্তিকা ও আরমান একই ছাদের তলায় বসবাস করেন।

হরিয়ানার ছেলে আরমানের প্রকৃত নাম সন্দীপ (Sandip)। 2011 সালে সন্দীপের সঙ্গে পায়েলের বিয়ে হয়েছিল। এরপর তাঁদের ছেলের জন্মদিনের পার্টিতে পায়েলের বান্ধবী কৃত্তিকার সঙ্গে সন্দীপের পরিচয় হয়। তাঁর সঙ্গে প্রথম দেখাতেই প্রেমে পড়ে গিয়েছিলেন সন্দীপ। এরপর মাত্র ছয়দিনের ভিতর পায়েলের অনুমতি নিয়ে কৃত্তিকাকে বিয়ে করেন সন্দীপ। কৃত্তিকা জানান, সন্দীপ তাঁদের দুজনকেই ভালোবাসেন। এই কারণে তাঁরা বিয়ে করেছেন। কিন্তু সন্দীপ জানিয়েছেন, একসময় বাপের বাড়ির সদস্যদের প্ররোচনায় পায়েল এই সম্পর্ক ভেঙে দিতে চেয়েছিলেন। কারণ পায়েলের পরিবার এই বিয়ে মানতে পারেননি। সেই সময় 2019 সালের সেপ্টেম্বর মাসে দিল্লির এক ছয় তলা বিল্ডিং-এ উঠে আত্মহত্যার হুমকি দিয়েছিলেন সন্দীপ। কুড়ি ঘন্টা ধরে এই নাটক চালিয়েছিলেন তিনি। পরে দিল্লি পুলিশ এসে পরিস্থিতি আয়ত্তে আনে।

আরো পড়ুন -   এই বয়সেও দুর্দান্ত মনের জোর, অসাধারণ নেচে নেটদুনিয়ায় ভাইরাল হলেন এই বৃদ্ধা

হিন্দু বিবাহ আইন অনুযায়ী, প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে আইনত বিবাহ বিচ্ছেদ না হলে দ্বিতীয় বিয়ে অবৈধ ঘোষিত হয়। ফলে সন্দীপ, পায়েল, কৃত্তিকা ও তাঁদের পুত্রসন্তান চিরায়ু ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন। ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করার পর সন্দীপ নিজের নাম পরিবর্তন করে আরমান নাম রাখেন ও ‘মালিক’ পদবী গ্রহণ করেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁদের নিয়ে সমালোচনা হলেও তাঁরা তাঁদের এই সম্পর্কে সুখী বলে জানিয়েছেন আরমান।

Related Articles

Back to top button