Hoop PlusBollywood

‘প্রিয়ঙ্ক ও পার্থ দুজনেই ব্ল্যাকমেইল করেছিল’, সমকামী সম্পর্কে প্রতারনার শিকার বিকাশ গুপ্তা!

কালার্স চ্যানেলের জনপ্রিয় শো ‘বিগ বস’-এর মাধ্যমে ‘মাস্টারমাইন্ড’ হিসাবে পরিচিত হয়ে গিয়েছেন বিকাশ গুপ্তা (Vikas Gupta)। খুব অল্প বয়সে পিতৃহারা হওয়ার পর নিজের পড়াশোনা ছেড়ে পরিবারের মুখে অন্ন তুলে দিতে রোজগার শুরু করেছিলেন বিকাশ। সেখান থেকে বর্তমানের বিকাশ গুপ্তা হয়ে ওঠার পথটা মোটেও সহজ নয়। ইতিমধ্যেই যে পরিবারের জন্য তিনি আত্মত্যাগ করেছিলেন, সেই পরিবার তাঁর থেকে দূরে সরে গিয়েছেন। কারণ বিকাশ বিগ বসের ঘরে নিজের মুখেই স্বীকার করেছিলেন, তিনি বাইসেক্সুয়াল।

বলিউড ইন্ডাস্ট্রির অত্যন্ত সফল ক্রিয়েটিভ পার্সন বিকাশ জানিয়েছেন, সুশান্ত সিং রাজপুত (Sushant Singh Rajput)-এর মতো তাঁরও পরিণতি হতে পারত যদি তিনি সময়মত সতর্ক না হতেন। কিন্তু বিকাশ দমে যাননি। সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি স্বীকার করেছেন, তিনি বাইসেক্সুয়াল। তাঁর একসময়ের পার্টনার অভিনেতা পার্থ সামথান (Parth Samthan) বিকাশের নামে অভিযোগ করেছিলেন, তিনি বলেছেন, তাঁর সাথে লিভ-ইন না করলে তিনি পার্কের কেরিয়ার নষ্ট করে দেবেন। পরবর্তীকালে পার্থের অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণিত হয়। এরপর বিকাশের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেন প্রিয়ঙ্ক শর্মা (Priyank Sharma)। প্রাক্তন স্প্লিটসভিলা প্রতিযোগী প্রিয়ঙ্ক ‘বিগ বস’-এ আসার আগে থেকেই চিনতেন বিকাশকে। তাঁদের মধ্যে সম্পর্কও ছিল। কিন্তু বিগ বসের ঘরে ঢোকার পর প্রিয়ঙ্ক অপর এক প্রতিযোগীর প্রেমে পড়ে যান। তিনি একজন মহিলা ছিলেন। বিগ বসের ঘর থেকে বেরিয়ে এই মহিলার সঙ্গে সম্পর্কের কারণে বিকাশের সঙ্গে সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করে ব্রেক-আপ করে দেন প্রিয়ঙ্ক।

গত বছর 20 শে জুন বিকাশ ইন্সটাগ্রাম ও টুইটারে নিজের সেক্সুয়ালিটি সম্পর্কে সমস্ত তথ্য দিয়ে জানান, তিনি তাঁর যৌনতা নিয়ে বিন্দুমাত্র লজ্জিত নন। এমনকি তিনি পার্থ ও প্রিয়ঙ্ককে আর ব্ল্যাকমেইল করার সুযোগ দেবেন না বলে প্রকাশ্যেই জানান। বিকাশ জানিয়েছেন, তাঁর সঙ্গে পার্থের দুই বছর সম্পর্ক থাকার পর পার্থ লাইমলাইটে আসার জন্য তাঁর বিরুদ্ধে কেস ফাইল করেছিলেন। একই সঙ্গে তিনি অপর একজন মানুষের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন। এই ঘটনার তিন বছর পর পার্থ ফিরে এসে বিকাশের কাছে ক্ষমা চেয়েছিলেন এবং অনুরোধ করেছিলেন, বিকাশ ও তাঁর সম্পর্কের সত্যতা সকলের সামনে না জানাতে। এর ফলে তাঁর কেরিয়ারে প্রভাব পড়তে পারে।

প্রিয়ঙ্কের সঙ্গে বিকাশের সম্পর্ক প্রথমদিকে ঠিক থাকলেও পরে বিকাশ বুঝতে পেরেছিলেন, প্রিয়ঙ্ক বিকাশকে শুধুমাত্র ব্যবহার করেছিলেন। আপাতত বিকাশ এই সমস্ত বিতর্ক দূরে সরিয়ে রেখে নিজের মতো বাঁচতে চান ও কেরিয়ারে মন দিতে চান।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Vikas Gupta (@lostboyjourney)

Related Articles

Back to top button